সেকশন

বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
 

লোকসভার ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না বিজেপি!

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ০৮:৫৭ পিএম

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের চতুর্থ ধাপ শেষ হলো সবে মাত্র। আরও তিনটি ধাপ শেষে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই নির্বাচন শেষ হবে ১ জন। এর দুই দিন পর, ৪ মার্চ জানা যাবে ভোটের ফল। ক্ষমতাসীন বিজেপি জোটের আশা, এবার তারা চারশ’ আসন জিতে সংখ্যাগরিষ্ঠা নিয়েই তৃতীয়বার সরকার গঠন করবে।

তবে, লোকসভা নির্বাচনের মাঝামাঝি পর্যায়ে এসে, বিজেপির এমন আশাকে দুরাশা বলছেন দেশটির অভিজ্ঞ সিফোলজিস্ট বা নির্বাচন বিশেষজ্ঞ যোগেন্দ্র যাদব। তিনি সোজা ভাষায় বলেছেন, এটি কোন বুথ ফেরত জরিপ নয়। বরং বিভিন্ন রাজ্য ঘুরে তার মনে হয়েছে, এবার বিজেপির আশা পূরণ হচ্ছে না।

ভারতের ৫৪৩টি লোকসভা আসনের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে হলে কোন দল বা জোটকে অন্তত ২৭২টি আসনে জিততে হবে। তবে যোগেন্দ্র মত দিয়েছেন, ২৭২ আসনের চেয়েও অনেক কম আসন পাবে এবার বিজেপি। এমনকি শরিকদের নিয়েও এবার সরকার গঠনে ব্যর্থ হতে পারে নরেন্দ্র মোদীর দল।

ভোটের বুথ ফেরত সমীক্ষা ও জনমত সমীক্ষা করার ব্যাপারে যোগেন্দ্রর অভিজ্ঞতা সুদীর্ঘ। তাঁর কথায় প্রায় তিরিশ বছরের। এক সময়ে সি.এস.ডি.এস-এর সিনিয়র ফেলো ছিলেন তিনি। তার পর, লোকনীতি নামে একটি প্রতিষ্ঠান তৈরি করে প্রাক ভোট জনমত সমীক্ষা করতেন বা বুথ ফেরত সমীক্ষা জানাতেন।

সোমবার যোগেন্দ্র দাবি করেন, তিনি রাজ্য রাজ্য ঘুরে যা বুঝেছেন তাতে করে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যার অনেক কম আসন পাবে। যোগেন্দ্রর মতে, অনেক নিচে নেমে যাবে বিজেপির আসন সংখ্যা। এমনকি শরিকদের নিয়ে এনডিএ-র আসন সংখ্যাও ম্যাজিক নাম্বার নাও ছুঁতে পারে।

যোগেন্দ্র বলেন, সংবাদমাধ্যমে প্রচারের মাধ্যমে একটা ধারণা তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে যে, বিজেপিই আবারও ক্ষমতায় আসছে। সেই কারণে অনেকে বলছেন, ভোট দিয়ে কী হবে, জিতবে তো মোদিই। কিন্তু এটা ঠিক নয়। বাস্তব ছবিটা দেশকে দেখানো আমার কর্তব্য বলে মনে করছি।

তার হিসাবে গেলোবার উত্তরাখণ্ড ও উত্তরপ্রদেশ মিলিয়ে মোট ৮৫টি আসনের মধ্যে বিজেপি ৬৯টি আসনে জিতলেও এবার কমপক্ষে ১৫টি কমতে পারে। বিহারে কম করে ১৫টি আসন হারাতে চলেছে এনডিএ। আর, পশ্চিমবঙ্গ, আসামসহ উত্তর-পূর্বে রাজ্য মিলিয়ে ৬৫টি আসনের মধ্যে ১০টি আসন কমবে বিজেপির।  

দিল্লি, হরিয়ানা, পাঞ্জাব, ও হিমাচল প্রদেশেও বেশ চাপে রয়েছে এনডিএ। হরিয়ানায় ১০ আসনের মধ্যে গত ভোটে ১০টিতেই জিতেছিলো বিজেপি। এবার এই চার রাজ্য মিলিয়ে কমপক্ষে ১০ আসন কমবে বিজেপির।  মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও ঝাড়খণ্ড মিলিয়ে কম করে ১০টি আসন বিজেপির কমবে।

রাজস্থানে ২৫টি লোকসভা আসন রয়েছে। গুজরাটে ২৬টি। গতবার সবগুলোতে জিতেছিল পদ্মশিবির। কিন্তু এই দুই রাজ্য মিলিয়ে এবার কম করে ১০টি আসনে হারছে বিজেপি। মহারাষ্ট্রে ৪৮টি আসনের মধ্যে ৪২টিতে জিতেছিলো এনডিএ। সেখানে খুব কম করে হলেও ২০টি আসনে হারছে এনডিএ।

কর্নাটকে ২৮টি লোকসভা আসনের মধ্যে গত ভোটে বিজেপি ২৬টি আসনে জিতেছিলো। এবার কম করে ১০টি আসন সেখানে হারছে তারা। তবে, যোগেন্দ্রর মতে, সবটাই লোকসানে নয়, তামিলনাডু, কেরালা ও তেলেঙ্গনা মিলিয়ে খুব বেশি হলে বিজেপির ৫টি আসন বাড়তে পারে।

অন্ধ্রপ্রদেশে চন্দ্রবাবু নাইডুর সঙ্গে জোটে থাকায় ১০টি আসনে লাভ হতে পারে গেরুয়া শিবির তথা এনডিএ-র। তবে, প্রথম চার দফার ভোটের পরে শুধু যোগেন্দ্র নন, উত্তরপ্রদেশে বিজেপির পক্ষে পরিস্থিতি অনুকূল নয় বলে মনে করেছেন অনেক পর্যবেক্ষক।

যোগেন্দ্রর হিসেবে, গতবারের তুলনায় ৭০টি আসন কমতে পারে বিজেপির। অর্থাৎ গেরুয়া শিবির ২৩৩টি আসন পেতে পারে। আর এনডিএ জোটের দলগুলো পেতে পারে ৩৫ আসন। মোট ২৬৮টি আসন জিততে পারে এনডিএ যা সংখ্যাগরিষ্ঠতার থেকে বেশ কম।

এআর
ভারতের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল- তৃণমূল দুর্দান্ত ফল করার পরও কংগ্রেসে ফিরে যেতে চাইছেন, দেশটির প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়।
এবারের লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদীকে শক্ত ছবক শিখিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তাই তো তিনি ছুটে গিয়েছেন কেরালায়। কংগ্রেসের বিপুল সফলতার জন্যে ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন...
ভারতের লোকসভা নির্বাচনে প্রত্যাশিত ফল পেতে ব্যর্থ হয়েছে সদ্য শপশ নেয়া নরেন্দ্র মোদীর দল বিজেপি। ফলে প্রথমবারের মতো জোট শরিকদের উপর নির্ভর করেই সরকার গঠন করতে হয়েছে গত দুই মেয়াদে দাপটের সঙ্গে ভারতকে...
দেশটির সবচেয়ে কম বয়সী আইনপ্রণেতা হওয়ায় ফল ঘোষণার পর থেকেই খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন তিনি। নাম সঞ্জনা জাটভ। বয়স ২৬।
প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইটে খেলতে নেমে লড়াই করেই অভিজ্ঞ প্রোটিয়াদের কাছে হারলো যুক্তরাষ্ট্র। সুপার এইটের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ১৮ রানে হেরেছে স্বাগতিকরা। 
কুড়িগ্রাম জেলার দামারহাটে তিস্তা নদীতে যাত্রীবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অনেকে। নিখোঁজদের সন্ধানে চলছে  উদ্ধার অভিযান।   
নৃত্যশিল্পী শিবলী মহম্মদ ও শামীম আরা নিপা এ দেশের নাচের জগতের অতি জনপ্রিয় জুটি। জীবনভর তারা নাচ নিয়েই সাধনা করে যাচ্ছেন। তবে এবার ঈদে নৃত্যের পুরোধা এই জুটি দেখিয়েছেন দারুণ এক চমক।
এক নারীর প্রেমে দুই বন্ধু। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিলো। এরই জের ধরে বেলাল হোসেন (২০) নামে এক যুবক তার বন্ধু সিরাজুল ইসলামের (২১) পুরুষাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। 
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত