সেকশন

সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
 

মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেও ক্ষমা চায়নি প্রথম আলো: তথ্যমন্ত্রী

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২৩, ০৩:২৩ পিএম

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করার পরেও ক্ষমা চায়নি প্রথম আলো। অথচ তারা আন্তর্জাতিক মহলে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা বলছে দ্রব্যমূল্য নিয়ে প্রতিবেদন করায় প্রতিবেদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ে লেখার কারণে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

রোববার (২ এপ্রিল) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদের (বিএসপি) সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টুও উপস্থিত ছিলেন সেখানে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তারা (প্রথম আলো) এখন পর্যন্ত ক্ষমা চায়নি। ভুল স্বীকার করে পত্রিকায় কোন বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি। বরং সংশ্লিষ্ট মিডিয়া হাউজ থেকে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিকদের টেলিফোন করা হয়েছে, দেন দরবার করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্য নিয়ে লেখার কারণে এক সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

তিনি জানান, গ্রেপ্তার হয়েছে সুনির্দিষ্ট অভিযোগে, স্বাধীনতাকে কটাক্ষ করা ও শিশুকে এক্সপ্লোয়েটে অপরাধে। এখন মিথ্যা অপপ্রচারের কারণে কেউ মামলা করে কি না তা দেখার বিষয়। সমালোচনাকে সরকার স্বাগত জানায়। কাজ করলে সমালোচনা হবেই।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের দেশ ও দেশের বাইরে থেকে কেউ কেউ বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি দেখতে পায় না বরং এটিকে নিয়ে কটাক্ষ করে। দুঃখজনক ও অনভিপ্রেত ঘটনা হলো আমাদের উন্নয়ন অগ্রগতিকে আড়াল করা হয়। কোন কোন সংবাদমাধ্যমে দেখতে পাই, কোনো একটি নেতিবাচক সংবাদ হলে সেটিকে যেভাবে ফলাও করে প্রচার করা হয়, দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির প্রশংসা কিংবা বিভিন্ন সূচকে যখন আমরা এগিয়ে যাই, সেটি সেভাবে প্রচার করা হয় না। যেটি সমীচীন নয়।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, ‘অনেক সময় খারাপ সংবাদকে গুরুত্ব দিয়ে ছাপানো হয়। ভালো সংবাদকে পরিবেশন করা হয় না। ২৬ মার্চ আমাদের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। সেই দিন মহান জাতীয় স্মৃতিসৌধের সামনে একটি শিশুর হাতে দশ টাকা দিয়ে যেই ঘটনা ঘটানো হয়েছে, তাকে দিয়ে যে বক্তব্য দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে, সে সেই বক্তব্য দেয়নি।’

আরও পড়ুন: ‘প্রথম আলোর ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের সুযোগ নেই’

হাছান মাহমুদ আরো বলেন, একজন দিনমজুরের বক্তব্য দিয়ে ছাপানো হয়েছে, ‘স্বাধীনতা দিয়ে কী হবে, যদি খাইতে না পারি’। এভাবে স্বাধীনতাকে কটাক্ষ করা হয়েছে। একই সাথে একটি শিশুর ছবি ব্যবহার করে তাকে নিগ্রহ করা হয়েছে। দিনমজুরের বক্তব্য, ছবি শিশুর। তারা অনলাইনে সেটি প্রকাশও করেছে।


একাত্তর/আরএ

বেনজীর আহমেদের দেশত্যাগে কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। বলেছেন, কারো ওপর দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা না থাকলে তিনি যে কোনো জায়গায় যেতে পারেন।
বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে যারা বিভিন্ন সময় ছবক দিয়েছে, তাদের দেশের বর্তমান মানবাধিকার পরিস্থিতি কেমন, তা সবাই দেখতে পাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।
সীমান্তে হত্যাকাণ্ড শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনা, তিস্তা প্রকল্পে ভারতের অর্থায়ন, ভিসা জটিলতা কমানো, প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর এবং নেপাল-ভুটানের ট্রানজিট দেয়া ও জলবিদ্যুতের মূল্য নির্ধারণের বিষয় নিয়ে...
বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হত্যার ঘটনা ‘দুঃখজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। বলেন, হত্যাকাণ্ড বন্ধে দুই দেশই কাজ করছে।
আত্মশুদ্ধি আর অন্যের পাশে দাঁড়ানোর শপথের মধ্য দিয়ে সোমবার উদযাপিত হবে ঈদুল আজহা। কোরবানির ঈদে আনন্দ আয়োজনের সঙ্গে ত্যাগের আবাহন আর প্রত্যাশা ফুটে উঠে বেশিরভাগের মাঝে।
লেনদেনের নিয়ম লঙ্ঘন করায় বাংলাদেশের সোনালী ব্যাংক পিএলসির ভারত শাখাকে প্রায় এক কোটি রুপি জরিমানা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া (আরবিআই)। একই অভিযোগে এক কোটি ৪৫ লাখ রুপি...
সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণের মামলায় গ্রেপ্তার ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
ঈদের আগের দিন জমজমাট রাজধানীর পশুর হাট। শেষদিনের কেনাবেচায় খুশি ক্রেতা-বিক্রেতারা। ক্রেতারা বলছেন, শেষ সময়ে এসে ব্যবসায়ীরা এখন পশুর দাম ছাড়তে শুরু করেছেন। তাই বিক্রিও বেড়েছে।
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত