ঢাকা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

তথ্য ও পরিসংখ্যানের ক্ষেত্রে বেশিরভাগই বিভ্রান্তিকর

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৩:২৯:২৯ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৩:৩৩:৩৭
তথ্য ও পরিসংখ্যানের ক্ষেত্রে বেশিরভাগই বিভ্রান্তিকর

তথ্য ও পরিসংখ্যানের ক্ষেত্রে দেশে একরকম সন্ত্রাস চলছে। সরকার প্রদত্ত বেশিরভাগ তথ্যই পুরনো এবং বিভ্রান্তিকর। যা শুধু সঠিক নীতি প্রণয়নেই বাধার সৃষ্টি করছে না, সরকারের উপর জনগনের আস্থা কমিয়ে দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ- সিপিডি আয়োজিত এক আলোচনায় এসব কথা উঠে এসেছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর এক হোটেলে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সিপিডি আয়োজিত বাংলাদেশে বাজেটিয় তথ্যের অবস্থা ও চ্যালেঞ্জ নিয়ে এক আলোচনায় সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী জানান, দেশে তথ্যের মান এতোটায় নিচে নেমেছে যে সেখানে গড়পড়তা সব সদস্যকেই না জেনে না বুঝে হ্যাঁ তে হ্যাঁ মেলাতে হচ্ছে, সিদ্ধান্ত নেবার ক্ষেত্রে। যা মানছেন অন্যান্য সংসদ সদস্যরাও। 

বিশ্বব্যাংকের সাবেক মুখ্য অর্থনীতিবিদ ড. জাহিদ হোসেন জানান, সময়মতো সঠিক তথ্যের অভাবে সরকারের উন্নয়ন প্রতিশ্রুতির প্রভাব বিশ্লেষণ করা জরুরি হয়ে পড়ছে। 

সাবেক অতিরিক্ত সচিব ড. রঞ্জিত কুমার চক্রবর্তী বলেন, এনবিআর অর্থমন্ত্রণালয় কিংবা পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের তথ্যের মধ্যে যে গরমিল আছে তা মানছেন সাবেক আমলারও। তবে তাদের যুক্তি প্রযুক্তিই পারে তা দূর করতে। 

সিপিডি কর্মকর্তা ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য এ অবস্থায় তথ্য উপাত্তের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে সমন্বিত তথ্য পঞ্জিকা প্রর্বতনের পরামর্শ দেন। 

এছাড়াও, দেশের সীমিত সম্পদের সবোর্চ্চ ব্যবহার নিশ্চিতে সঠিক তথ্য ভিত্তিক গবেষণা এবং সে অনুযায়ী পরিকল্পনা গ্রহনের বিকল্প নেই বলে মনে করেন আলোচকরা।

একাত্তর/ এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

৪ দিন ৯ ঘন্টা আগে