ঢাকা ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

অনশনের ঘোষণার এক ঘণ্টার মধ্যে কর্মসূচি বাতিল

নাদিয়া শারমিন, একাত্তর
প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:২৫:৩৯ আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:২৪:০১
অনশনের ঘোষণার এক ঘণ্টার মধ্যে কর্মসূচি বাতিল

আমরণ অনশনের ঘোষণার মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কার হওয়া ১৬ নেতা-কর্মী। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে তারা এই অনশন শুরু করেছিলেন।

কিন্তু সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে বের হয়ে তারা বলেছেন, এখন আর অনশন করবেন না। তারা ক্যাম্পাসেই ফিরে যাচ্ছেন।

রোববার দিনভর দফায় দফায় সংঘাতের পর, সোমবার সকালে ইডেন কলেজ ক্যাম্পাস ছিলো থমথমে। দিনের ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় রোববার গভীর রাতে কলেজের কমিটি স্থগিত ও ১৬ জন নেতা কর্মীকে স্থায়ী বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

সকালে কলেজের গেটেই সংবাদ সম্মেলন ডাকেন বহিষ্কৃতরা। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বহিষ্কার আদেশের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেন ১৬ ছাত্রলীগ নেতা। সেই সঙ্গে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার না করলে আমরণ অনশনের ঘোষণাও দেন তারা।

বহিষ্কারের প্রতিবাদে আমরণ অনশন পালন করতে তারা যখন ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে রওনা হন তখন কলেজ ক্যাম্পাসে ঢোকে পুলিশ কর্মকর্তারা। এ সময় সুটকেস, ব্যাগসহ কিছু ছাত্রীকে বেরিয়ে যেতে দেখা যায়।

ধানমন্ডি আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঢোকার মুখেই বাধার মুখে পড়েন বহিষ্কৃতরা। পরে ঢুকতে পারলেও তারা বেরিয়ে আসেন এক ঘণ্টার মধ্যেই। দ্রুত রিক্সা করে বেরিয়ে যাবার পথেই সাংবাদিকদের জানান, তারা স্বেচ্ছায় অনশন কর্মসূচি বাতিল করেছেন।

ধানমন্ডির আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে বের হওয়ার পর জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, আমরা বিষয়গুলো বড় ভাইদের জানাতে এসেছিলাম। জানিয়ে এখন চলে যাচ্ছি। সমস্যা সমাধানে তাঁরা দায়িত্ব নিয়েছেন। আমরা কোনো অনশনে নেই। আমাদের কোনো কর্মসূচি নেই।

উল্লেখ্য, ইডেন কলেজ সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও সিট বাণিজ্য নিয়ে গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় জান্নাতুল ফেরদৌস নামে এক ছাত্রলীগ নেত্রীকে হল থেকে মারধর করে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় গেল শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ সময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাদের পদত্যাগেরও দাবি জানায়। পরের দিন রোববার সংবাদ সম্মেলন ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা।

সংবাদ সম্মেলনের এক পর্যায়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এ ঘটনায় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা, কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঋতু আক্তারসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

আরও পড়ুন: ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত, বহিষ্কার ১৬

এর আগে ওই দিনই ২ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয়। তদন্ত কমিটিকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। এর ভেতরই ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের একাংশ সেই তদন্ত কমিটির প্রতি নানা অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলনে অনাস্থা প্রকাশ করেন।

একই সঙ্গে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা এবং সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা না নিলে গণ-পদত্যাগের ঘোষণা দেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের ২৫ জন নেত্রী।

একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads