ঢাকা ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

শেষটায় ‘সর্বোত্তম’ দেখলেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ১৬ জানুয়ারী ২০২২ ১৯:০২:৩২ আপডেট: ১৬ জানুয়ারী ২০২২ ২১:২৯:৪১
শেষটায় ‘সর্বোত্তম’ দেখলেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনকে নিজের আমলের ‘সর্বোত্তম’ হিসাবে উল্লেখ করেছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। 

রোববার (১৬ জানুয়ারি) নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনি এলাকা ঘুরে এসে বিকেলে আগারগাঁওয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের দেয়া লিখিত বক্তব্যে তিনি একথা জানান।

মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘নাসিক নির্বাচন আমাদের কার্যকালে সর্বশেষ সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এটি নিয়ে আমার অনেক প্রত্যাশা। এ নির্বাচনে আমি চারটি কেন্দ্রের ১৪টি বুথ পরিদর্শন করেছি। উল্লেখযোগ্য কোনও সংঘর্ষ ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম ঘটেনি। বিগত পাঁচ বছরে যত সিটি করপোরেশন নির্বাচন হয়েছে, আমার বিবেচনায় কুমিল্লা সিটি ও নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন সর্বোত্তম। নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের এ জন্য ধন্যবাদ জানাই’।

তবে এই নির্বাচনে সরকারি দলের একজন সংসদ সদস্য আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচারে অংশ নেয়ার অভিযোগ উঠলেও কোনও ব্যবস্থা না নেয়ায় বিস্ময় জানান তিনি।

কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন নিয়ে আমি কিছুটা বিস্মিত। একজন সংসদ সদস্য আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচারণা চালিয়েছেন। তাকে একটা চিঠি পর্যন্ত দেওয়া হয়নি। উল্টো বলা হয়েছে, তিনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করলেও শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেননি। তাহলে অন্যান্য সংসদ সদস্যকে আচরণবিধি লঙ্ঘনের চিঠি দেয়া হলো কেন?’

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বিভিন্ন কারণে কিছু মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করেও এদের সংখ্যা জানা যায়নি। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে এ নিয়ে কোনও তথ্য নেই। এমনকি, অন্যান্য নির্বাচনে সহিংসতায় নিহতদেরও তথ্য নেই। নির্বাচনকালে গায়েবি মামলার হিড়িক পড়ে যায় কেন, সেটাও একটা প্রশ্ন।’

তিনি বলেন, ‘আমি নিজে সবসময় গায়েবি মামলার বিরোধিতা করেছি। এই নির্বাচনকালেও পুরোনো মামলায় আটক অব্যাহত রয়েছে, যা দুঃখজনক’।

২০১৭ সালে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে পাঁচ সদস্যের ইসিতে নানা কর্মকাণ্ডে বারবার আলোচিত ছিলেন মাহবুব তালুকদার।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার অধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে। এর আগে এ কমিশনের অধীনে নাসিকের ভোট হলো। 


একাত্তর/এনএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

১০ দিন ৩ ঘন্টা আগে