ঢাকা ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধে পরের সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বুঝে: শিক্ষামন্ত্রী

শারমিন নীরা, একাত্তর
প্রকাশ: ২১ জানুয়ারী ২০২২ ১৭:২০:৫৯ আপডেট: ২১ জানুয়ারী ২০২২ ২১:৫৯:২৫
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধে পরের সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বুঝে: শিক্ষামন্ত্রী

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্কুল-কলেজসহ সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়ে পাঁচ দফা নির্দেশনাও জারি করেছে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ।

এদিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি একাত্তরকে জানিয়েছেন, সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আপাতত দুই সপ্তাহ বন্ধ থাকলেও পরে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এসময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রম চলবে।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এর আগে শিশুরা এতো আক্রান্ত হয়নি। তাই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আপাতত দুই সপ্তাহ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিসগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা থাকবে। টিকাদান কর্মসূচি যেখানে যেভাবে চলছে সেগুলো চলবে। অনলাইন এবং অ্যাসাইনমেন্টে বিষয়গুলো আমাদের বিবেচনায় রয়েছে। আর বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেরাই সিদ্ধান্ত নেবে। এই সময়টা অনলাইনেই শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে।

এর আগে শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) কোভিড-১৯ এর বর্তমান সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নতুন এই নির্দেশনা অনুযায়ী এখন থেকে হোটেল, রেস্তোরাঁ, পর্যটনকেন্দ্র, বইমেলা, বাণিজ্যমেলা ও বিপিএলে প্রবেশ করতে টিকা সনদ ও করোনা নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। 

আরও পড়ুন: ঢাবিতে আবারও সশরীরে ক্লাস বন্ধ ঘোষণা, খোলা থাকবে হল

পাঁচ দফা নির্দেশনাগুলো হচ্ছে: 

১. ২১ জানুয়ারি ২০২২ থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ ও সমপর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে; 

২. বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজ নিজ ক্ষেত্রে অনুরূপ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে; 

৩. সামাজিক/রাজনৈতিক/ ধর্মীয়/ রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে ১০০-এর বেশি জনসমাবেশ করা যাবে না। এসব ক্ষেত্রে যারা যোগদান করবে তাদের অবশ্যই টিকা সনদ বা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর সার্টিফিকেট আনতে হবে; 

৪. সরকারি/বেসরকারি অফিস, শিল্প কারখানাসমূহে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের টিকা সনদ গ্রহণ করতে হবে; 

৫. বাজার, শপিং মল, মসজিদ, বাসস্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট ও রেলস্টেশনসহ সব ধরনের জনসমাবেশে অবশ্যই মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে। 


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads
ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

২ মাস ৫ দিন আগে