ঢাকা ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

২০৪১ সালের মধ্যে কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ হবে ৫০ ভাগ: দীপু মনি

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ০৮ মার্চ ২০২২ ১৬:৩৮:৫৬
২০৪১ সালের মধ্যে কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ হবে ৫০ ভাগ: দীপু মনি

সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ ৫০ ভাগে উন্নীত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

মঙ্গলবার (৮ মার্চ) ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আলোচনা সভায় তিন এ কথা বলেন। 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে সরকার ইতিমধ্যে কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। 

দীপু মনি বলেন, লিঙ্গবৈষম্য কমিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশের অন্যতম অর্জন। এ বিষয়ে বাংলাদেশের স্থান দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবার ওপরে। কয়েকটি ক্ষেত্রে বিশ্বের সব দেশের ওপরে বাংলাদেশের স্থান।

মন্ত্রী বলেন, আশা করি ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে থাকবে বাংলাদেশ। খাদ্য নিরাপত্তা, নিরাপদ পানি, জলবায়ু পরিবর্তন, টেকসই পরিবেশ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা ‘ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ গ্রহণ করা হয়েছে। 

এসময় শিক্ষা ক্ষেত্রে দেশে নারীর অগ্রযাত্রার পরিসংখ্যান তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর ২৮ দশমিক চার শতাংশ নারী শিক্ষার্থী থাকলে বর্তমানে মাধ্যমিক পর্যায়ে ৫৫ শতাংশ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থীই নারী।

নারী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়ার কথা উল্লেখ করে দীপু মনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট হতে স্নাতক ও সমমান পর্যায়ে অগ্রাধিকারভিত্তিতে ৭৫ শতাংশ নারী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের মাধ্যমে ২০১২-১৩ থেকে ২০২০-২১ অর্থবছর পর্যন্ত স্নাতক ও সমমান পর্যায়ে নয় লক্ষ ৭১ হাজার ৮৭৬ জন নারী শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি বাবদ ৪৭৬ কোটি ২১ লাখ ৭৭ হাজার ৭০০ টাকা দিয়েছে।

আরও পড়ুন: ২০৩০ সালের মধ্যে সার্বজনীন পেনশন: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল পাঁচ নারীকে পুরস্কার দেওয়া হয়। এবার জয়িতা পদক-২০২২ পেয়েছেন মোছা. সানজিদা আক্তার শিমু, ড. হোসনে আরা আরজু, খোশনাহার বেগম, জেসমিন আক্তার ও মোছাৎ রোকেয়া বেগম।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- মহিলা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফরিদা পারভীন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ডা. আ.এ.মো. মহিউদ্দিন ওসমানী।


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

১০ দিন ৩ ঘন্টা আগে