ঢাকা ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

‘টিপ পরছস কেন’ বলা সেই পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ০৪ এপ্রিল ২০২২ ১৮:১৬:০৬ আপডেট: ০৪ এপ্রিল ২০২২ ১৮:৫০:৪৫
‘টিপ পরছস কেন’ বলা সেই পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

টিপ পরা নিয়ে রাজধানীর ফার্মগেট এলাকায় এক শিক্ষককে হেনস্তার অভিযোগে কনস্টেবল নাজমুল তারেককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ডিএমপি’র সূত্র জানিয়েছে, ঘটনা তদন্তে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এর আগে সকালে নাজমুল তারেককে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া কথা জানিয়েছিলেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

অভিযুক্ত পুলিশের কনস্টেবল নাজমুল তারেক পুলিশের প্রটেকশন বিভাগে কর্মরত। 


টিপ পরায় পুলিশের হেনস্তার শিকার হওয়ার কথা জানিয়ে ঢাকার তেজগাঁও কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক লতা সমাদ্দার শনিবার শেরেবাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

আরও পড়ুন: ২৬ এপ্রিল নয়, আগেই বন্ধ হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

পুলিশের পোশাক পরা একজনের বিরুদ্ধে ‘ইভটিজিং’ এবং ‘প্রাণনাশের চেষ্টা’র অভিযোগ করা হয় ওই জিডিতে।

ওই দিনের ঘটনার বিবরণ দিয়ে কলেজশিক্ষক লতা সমাদ্দার বলেন, ‘আমি হেঁটে কলেজের দিকে যাচ্ছিলাম। হুট করে পাশ থেকে মধ্যবয়সী, লম্বা দাড়িওয়ালা একজন ‘টিপ পরছোস কেন’ বলেই বাজে গালি দিলেন। তাকিয়ে দেখলাম তার গায়ে পুলিশের পোশাক। একটি মোটরবাইকের ওপর বসে আছেন। প্রথম থেকে শুরু করে তিনি যে গালি দিয়েছেন, তা মুখে আনা, এমনকি স্বামীর সঙ্গে বলতে গেলেও লজ্জা লাগবে। ঘুরে ওই ব্যক্তির মোটরবাইকের সামনে গিয়ে দাঁড়াই। তখনও তিনি গালি দিচ্ছেন। লোলুপ দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিলেন। একসময় আমার পায়ের পাতার ওপর দিয়েই বাইক চালিয়ে চলে যান।’


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

১০ দিন ৩ ঘন্টা আগে