ঢাকা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

মসজিদে গিয়ে বৈঠক করলো আরএসএস প্রধান

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:১৮:০১
মসজিদে গিয়ে বৈঠক করলো আরএসএস প্রধান

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে দেশটির কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) প্রধান মোহন ভগবত একটি মসজিদ পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি মসজিদের প্রধান ইমামের সাথে এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্তেম্বরয) এ খবর জানা গেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, দিল্লির কেন্দ্রস্থলে একটি মসজিদে ভারতের ইমামদের সংগঠন অল ইন্ডিয়া ইমাম অর্গানাইজেশনের প্রধান ইমাম উমর আহমেদ ইলিয়াসের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন মোহন ভগবত। যে মসজিদে তারা বৈঠক করেছেন সেটি সরকারি ও রাজনৈতিক প্রধান প্রধান কিছু ভবনের কাছে অবস্থিত।

ইমাম উমর আহমেদের ছেলে সুহাইব ইলিয়াসি বলেছেন, এই বৈঠক দেশের মানুষের কাছে একটি অত্যন্ত ভালো বার্তা দিয়েছে। আমরা একটি পরিবারের মতো আলোচনা করেছি। তারা আমাদের আমন্ত্রণে এসেছেন, এটা বেশ চমৎকার।

আরএসএসের প্রধান মোহন ভগবত দেশটিতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি জোরদার করার লক্ষ্যে সম্প্রতি মুসলিম সম্প্রদায়ের বৃদ্ধিজীবীদের সাথে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন বলে জানিয়েছে হিন্দুত্ববাদী এই সংগঠন। 

এর আগে, উত্তরপ্রদেশের জ্ঞানবাপী মসজিদের নিচে শিবলিঙ্গ রয়েছে বলে হিন্দুত্ববাদীরা দাবি করে আদালতে মামলা করেছে। পরে মোহন ভগবত বলেছিলেন, প্রত্যেকটি মসজিদের নিচেই শিবলিঙ্গ রয়েছে কিনা তা খুঁড়ে দেখা উচিত!

কিছুদিন আগে দেশটির কর্ণাটক প্রদেশে মুসলিম শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা নিয়ে বিতর্ক এবং ইসলাম ধর্মের মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে বিজেপির নেত্রী নুপুর শর্মার মন্তব্যের পর আরএসএস প্রধানের এ ধরনের বৈঠককে তাৎপর্যপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছে সংগঠনটি।

ভারতের বর্তমান ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) আদর্শিক পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করে আরএসএস বা রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ। সংগঠনটির মুখপাত্র সুনীল আমবেকার বলেছেন, আরএসএস সরসংঘচালক সর্বস্তরের মানুষের সাথে দেখা করেন। এটি ধারাবাহিক সাধারণ ‘সংবাদ’ (আলোচনা) প্রক্রিয়ার অংশ।

এর আগে গত ২২ আগস্ট ভারতের মুসলিম পাঁচ বুদ্ধিজীবীর সাথে সাক্ষাৎ করে দেশটির সাম্প্রতিক সাাম্প্রদায়িক অসম্প্রীতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। পরে ওই বৈঠকে উভয়পক্ষ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি জোরদার ও বিরোধ নিরসনে ঐক্যমত পোষণ করে।

৭৫ মিনিটের ওই বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন ভারতের সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এসওয়াই কুরাইশি। তিনি বলেন, মোহন ভগবত বলেছেন, ‘এমনকি তিনিওও দেশের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন। সাম্প্রদায়িক অসম্প্রীতি নিয়ে আমিও সন্তুষ্ট নই। এটা পুরোপুরি ভুল। পারস্পরিক সহযোগিতা এবং সংহতির মাধ্যমেই কেবল দেশকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব।’


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

৫ দিন ১ ঘন্টা আগে