ঢাকা ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা, প্রাইভেট শিক্ষক রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী
প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:২৪:২৫
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা, প্রাইভেট শিক্ষক রিমান্ডে

নোয়াখালীর মাইজদীর পৌরসভার লক্ষ্মীনারায়ণপুরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তাসিনয়া হোসেন অদিতাকে (১৪) ধর্ষণ ও হত্যায় প্রধান আসামি প্রাইভেট শিক্ষক আবদুর রহিম রনির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপর শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন, শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রনিকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তুলে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। পরে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এমদাদ হোসেন শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।


পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিক আলামতে রনির শরীর থেকে ভিকটিমের নখের কিছু আঁচড়ের চিহ্ন পাওয়া গেছে। 

তিনি জানান, কিছুদিন আগে রনির কোচিং সেন্টার থেকে বাদ দিয়ে অন্যস্থানে প্রাইভেট শুরু করে অদিতা। এতে ক্ষিপ্ত ছিল রনি। যদিও পরে অদিতাদের বাসায় বিভিন্ন সময় আসা যাওয়া করতো সে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে দুপুর দুইটার মধ্যে কোনো এক সময় অদিতার মা ঘরে না থাকার সুযোগে ধর্ষণ করে রনি। পরে ঘটনা ধামাচাপা দিতে ঘরে থাকা ছোরা দিয়ে হাত ও গলা কেটে তাকে হত্যা করে। ঘটনা ভিন্ন খাতে নিতে রনি ঘরে আলমিরাতে থাকা মালামাল ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখে। কিন্তু কোনো মূল্যবান জিনিস খোয়া যায়নি।

ওই দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে জাহান মঞ্জিলের একটি কক্ষ থেকে অদিতার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃতদেহটি অর্ধনগ্ন, গলা ও দুই হাতের রগ কাটা অবস্থায় বিছানায় পড়ে ছিলো। ঘটনায় জড়িত থাকা সন্দেহে পুলিশ তাৎক্ষনিক তিন জনকে আটক করা হয়।


এদিকে অদিতা হত্যা মামলায় আসামিদের পক্ষে কোনো আইনজীবী দাঁড়াবেন না বলে জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক অ্যাড. শিহাব উদ্দিন শাহীন। 

আরও পড়ুন: স্কুলছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার তিন

তিনি বলেন, এবিষয়ে নোয়াখালী আইনজীবী সমিতি থেকে শিগগির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে।

তিনি বলেন, আসামিদের সর্বোচ্চ সাজা নিশ্চিত করতে বারের প্রায় সব সিনিয়র আইজীবী ভিকটিমের পক্ষে আদালতে লড়বো। কোনোভাবেই এই নৃশংস হত্যার আসামিদের ছাড় দেওয়া হবেনা।


একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

১০ দিন ৩ ঘন্টা আগে