ঢাকা ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

কাবুলে জুমার নামাজের পর বিস্ফোরণ, নিহত সাত

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৩৬:৩৯ আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৪১:৫৬
কাবুলে জুমার নামাজের পর বিস্ফোরণ, নিহত সাত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে গতকাল জুমার নামাজের পর একটি মসজিদ থেকে মুসল্লিরা বের হওয়ার সময় একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে অন্তত সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকজন শিশুসহ ৪১ জন আহত হয়েছে।  

কাবুল পুলিশের ভাষ্যানুযায়ী, গতকাল শুক্রবার শহরের কেন্দ্রভাগে মুসল্লিরা জুমার নামাজের পর মসজিদটি থেকে বের হয়ে আসার সময় এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে যে, মসজিদের অদূরে পার্ক করা একটি গাড়িতে আচমকা বিস্ফোরণ ঘটে।

কাবুলের পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র খালিদ জাদরান বলেছেন, ওয়াজির আকবর খান মসজিদে ইচ্ছাকৃতভাবে এ হামলা করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, স্থাপনাটির আশেপাশের এলাকাটিতে তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের কর্মকর্তাদের আবাসনসহ একটি টেলিভিশন সম্প্রচার কেন্দ্র ছিল। এলাকাটি জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা। 

এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী বা ব্যক্তি এ বোমা হামলার দায় স্বীকার করেনি। মাত্র এক বছর আগে তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখল করার পর থেকে দেশটিতে প্রায় প্রায় এ ধরনের আক্রমণের ঘটনা ঘটে। 

একজন প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ বসির বলেন, অনেক মানুষ মারা গেছেন অথবা আহত হয়েছেন। আমি জানি না রাস্তার ধারে বিস্ফোরক রাখা ছিল নাকি এটি একটি গাড়ি বোমা ছিল, তবে সেখানে একটি বিস্ফোরণ হয়েছিল, এবং সমস্ত লোকের অবস্থা খারাপ ছিল।

আরেক প্রত্যক্ষদর্শী আল্লাহ নূর বলেন, বিস্ফোরণটি খুবই শক্তিশালী ছিল।

আরও পড়ুন: বহু বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে ইরান

তিনি বলেন, আমি বেরিয়ে এসে রাস্তা পার হচ্ছিলাম যখন একটি বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের পরপরই, লোকেরা ঘাবড়ে গিয়ে আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যেতে শুরু করে।

ইসলামিক স্টেট বা আইএস সংগঠনটি আফগানিস্তানে তালেবানের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী। মসজিদ, ইমাম এবং বিশেষ করে আফগানিস্তানের সংখ্যালঘু শিয়াদের সদস্যদের আক্রমণে লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে আইএস। সংশ্লিষ্টদের ধারনা, এ হামলার পিছেও সংগঠনটির হাট রয়েছে।  


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads
ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

২ মাস ৫ দিন আগে