ঢাকা ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

প্রথম ডোজ টিকা নেয়ার শেষ সুযোগ তিন অক্টোবর পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৯:৪৫:০৩
প্রথম ডোজ টিকা নেয়ার শেষ সুযোগ তিন অক্টোবর পর্যন্ত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনে করোনার টিকার বিশেষ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এই কর্মসূচি বুধবার শুরু হয়ে চলবে তিন অক্টোবর পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ বাদ পড়া ব্যক্তিদের টিকা নেয়ার আহবান জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম জানান, দেশে টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা এরই মধ্যে অর্জিত হয়েছে। মোট জনগোষ্ঠীর ৯৭ শতাংশ মানুষ টিকার প্রথম ডোজ, ৯০ শতাংশ দ্বিতীয় ডোজ এবং ৪১ শতাংশ তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ নিয়েছেন। এই বিশেষ কর্মসূচি বিশেষ করে তাদের জন্য যারা এখনো টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া থেকে বাকি রয়েছেন।

তিনি বলেন, মজুত ভ্যাকসিনের মেয়াদ শীঘ্রই শেষ হয়ে যাবে। তাই, ৩ অক্টোবরের পর আমরা প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ ক্যাম্পেইন  চালাতে পারবো না। অক্টোবরের পর থেকে ভ্যাকসিনের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া বন্ধ থাকবে এবং শুধুমাত্র বুস্টার ডোজ দেওয়া চলবে। 

তবে কোন কোম্পানির টিকার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সব টিকা একসঙ্গে আসেনি। ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন টিকা এসেছে। তাই সব টিকার মেয়াদই শেষ হয়ে যাচ্ছে- বিষয়টি এমনও নয়। আর বর্তমানে তিন কোটি টিকা হাতে রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, যেহেতু সাম্প্রতিক সময়ে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, তাই যারা টিকা নেননি তারা টিকা নিয়ে নেন। করোনা প্রতিরোধে মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশকে তিনটি ডোজ দিয়ে টিকা দেওয়ার লক্ষ্য ছিল সরকারের। ইতোমধ্যে জনসংখ্যার প্রায় ৪১ শতাংশ প্রত্যেকে বুস্টার ডোজ পেয়েছে।

আরও পড়ুন: ডেঙ্গু: এক দিনে রেকর্ড ৫২৪ জন হাসপাতালে, মৃত্যু এক

১১ অক্টোবর থেকে ৫-৬ বছর বয়সী শিশুদের টিকার বিশেষ কর্মসূচি শুরু হবে। উপজেলা পর্যায় এ কর্মসূচি সম্প্রসারিত করা হবে বলেও জানান অধ্যাপক খুরশীদ আলম। তিনি বলেন, চতুর্থ ডোজ দেয়ার বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন এখনও পাওয়া যায়নি। তাই চতুর্থ ডোজের বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নেয়া যাচ্ছে না।

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, চতুর্থ ডোজ নিয়ে এখনও কোনো পরিকল্পনা হয়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনো নির্দেশনা দেয়নি। যেসব দেশে চতুর্থ টিকা দেওয়া হচ্ছে তারা নিজেদের দেশের প্রটোকল মেনে এটা দিচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যদি নির্দেশ দেওয়া তাহলে তখন সেটা করা হবে।

একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads
ছাদ খোলা অভিবাদন!

ছাদ খোলা অভিবাদন!

২ মাস ৮ দিন আগে