ঢাকা ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

জাতিসংঘের নিন্দা প্রস্তাবে ভেটো দিলো রাশিয়া

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০২২ ১৩:৪৭:০০ আপডেট: ০১ অক্টোবর ২০২২ ১৩:৫৯:০৫
জাতিসংঘের নিন্দা প্রস্তাবে ভেটো দিলো রাশিয়া

ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত করার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব উত্থাপন করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও আলবেনিয়া। স্বভাবতই এতে ভেটো দিয়েছে রাশিয়া।

তবে মস্কোর মিত্র হিসেবে পরিচিত চীন এই প্রস্তাবে ভোটদানে বিরত ছিলো। নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা টমাস-গ্রিনফিল্ড। 

এতে সংস্থার সদস্য দেশগুলোকে ইউক্রেনের কোনও পরিবর্তিত অবস্থাকে স্বীকৃতি না দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। 

১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদের ১০ দেশই রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়। ভোটদানে বিরত ছিল চীন, গ্যাবন, ভারত ও ব্রাজিল।

রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা আসছে

ইউক্রেনের চার অঞ্চল রুশভুক্ত হওয়ার পরই রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকেও নিষেধাজ্ঞা আসছে।

আমেরিকার ট্রেজারি বিভাগ জানিয়েছে, সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান, রুশ আর্থিক অবকাঠামোর সাথে সংশ্লিষ্ট তিন নেতার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। 

এ ছাড়া ক্রেমলিনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের পরিবারের সদস্য ও আইনসভার ২৭৮ সদস্যকে লক্ষ্য করেও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। 

এদিকে ক্রেমলিনের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা আনতে বৈঠক করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কূটনীতিকরা। তবে কোন কোন বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবে তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

আগামী সপ্তাহেই রাশিয়ার আমদানি-রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি মস্কোর তেলে সর্বোচ্চ মূল্য নির্ধারণ করে দেয়া হতে পারে।

দ্রুত ন্যাটোর সদস্য হতে চায় ইউক্রেন

সামরিক জোট ন্যাটোতে দ্রুত যোগদানের জন্য কিয়েভের পক্ষ থেকে আবেদন করা হবে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

শুক্রবার ইউক্রেনের দখলকৃত চারটি ভূখণ্ডকে রাশিয়ার অংশ হিসেবে ঘোষণার পর একথা জানালেন তিনি।  

আরও পড়ুন: বাধ্যতামূলক আইসোলেশন তুলে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা একটি ভিডিওতে জেলেনস্কি বলেন, এরইমধ্যে, ন্যাটো জোটের মানদণ্ডের যোগ্যতার প্রমাণ দেখিয়েছে ইউক্রেন।

দ্রুত ন্যাটোতে যোগদানের বিষয়ে আবেদনে স্বাক্ষর করতে পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে দেশটি। জেলেনস্কি বলেছেন, মস্কোর সাথে কোনও আপস করবে না কিয়েভ। 

তিনি আরও বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট যতদিন পুতিন থাকবেন, ততদিন দেশটির সাথে কোনও সমঝোতা করবে না ইউক্রেন।


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads