ঢাকা ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯

এমবাপের জোড়া গোলে শেষ ষোলোয় ফ্রান্স

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ০০:৫৫:২৪ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ০১:৩৯:১৭
এমবাপের জোড়া গোলে শেষ ষোলোয় ফ্রান্স

পরপর দু’ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করলো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। অন্যদিকে প্রথমার্ধে ফরাসিদের আটকে রেখেও শেষ রক্ষা হলো না ডেনমার্কের। এ আসরে ডেনিশ ড্রিমের ইতি এখানেই। 

শনিবার কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ ডি-র ম্যাচে ডেনমার্ককে ২-১ গোলে হারালো ফরাসিরা। এখন দু’ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে তারা। ফ্রান্সের দু’টি গোলই এসেছে কিলিয়ান এমবাপের পা থেকে। আর ডেনমার্কের হয়ে একটি গোল করেন আন্দ্রেস ক্রিশ্চেনসেন। 

ম্যাচের শুরু থেকেই হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছিল। দু’দলের কেউই প্রতিপক্ষকে ছাড় দিতে নারাজ। তবে আক্রমণে বরাবরাই এগিয়ে ছিল ফ্রান্স। দু’প্রান্ত ব্যবহার করে আক্রমণ চালাচ্ছিল এমবাপেরা। অন্যদিকে নিজদের রক্ষণভাগ সামলাতে বেশি মনোযোগী ছিল ডেনমার্ক।

প্রথমার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে চলে ম্যাচ। ৩০ মিনিটের মাথায় এমবাপে ও থিয়ো নিজেদের মধ্যে বল দেওয়া নেওয়া করে ড্যানিশ বক্সে ঢোকেন। থিয়োর ক্রস পান কৌন্ডে, ডান পায়ে জোরালো শটও মারেন তিনি। কিন্তু জালে বল জড়াতে ব্যর্থ হন। তিন মিনিট পরে আবারও বল নিয়ে ডেনমার্কের বক্সে ঢোকেন গ্রিজম্যান। সরাসরি গোলে শট নেন, কিন্তু তিনিও ব্যর্থ হন। 

থেমে থাকেনি ডেনমার্কও, ম্যাচের ৩৫ মিনিটের মাথায় প্রতিআক্রমণ থেকে গোল করার চেষ্টা করে। ডান প্রান্তে বল পান ড্যামসগার্ড। তিনি বল বাড়ান কর্নেলিয়াসের দিকে। তার ডান পায়ের জোরালো শট গোলের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। এভাবেই শেষ হয় ম্যাচের প্রথমার্ধ। গোলশূন্য বিরতিতে যায় দু’দল।


দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে চাপ বাড়ানোর চেষ্টা করে ডেনমার্ক। বাঁ প্রান্ত ধরে উঠে বক্সে বল রাখেন এরিকসন। কিন্তু সেই বল কাজে লাগাতে পারেনি কোনো সতীর্থ। 

তবে ম্যাচের ৬০ মিনিটের মাথায় আবার জ্বলে উঠে ফরাসিরা। বাঁ দিকে থেকে এমবাপেকে পাস দেন হের্নান্দেস। পাল্টা তাকে পাস বাড়ান এমবাপে। গোল লাইন থেকে বক্সে বল রাখেন হের্নান্দেস। বলে ডান পায়ের শটে গোল করেন এমবাপে। ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স।

গোল খেয়ে কিছুটা চাপে পড়লেও আগ্রাসী হয়ে উঠে ডেনমার্ক। কিছুক্ষণের মধ্যে তার ফলও মেলে। কর্নার থেকে সতীর্থের ব্যাক হেড থেকে হেডে গোল করেন ক্রিশ্চেনসন। ১-১ গোলে আবারও সমতা ফেরে ম্যাচে।  

আরও পড়ুন: মেক্সিকোর সঙ্গে ম্যাচকে ফাইনাল হিসাবে দেখছে আর্জেন্টিনা

তবে শেষদিকে গোল করার জন্য আবারও মরিয়া হয়ে ওঠে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচ শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট আগে অর্থাৎ ৮৭ মিনিটের মাথায় আবার গোল করে ফ্রান্সকে এগিয়ে দেন এমবাপে। বক্সের বাইরে থেকে বল তোলেন গ্রিজম্যান। ডিফেন্ডারকে ঘাড়ের কাছে নিয়ে ডান পায়ের টোকায় গোল করেন এমবাপে। এরপর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি ডেনমার্ক।  

এর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে ফ্রান্সকে শিরোপা জেতাতে এমবাপে করেছিলেন ৪ গোল। এবার প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে করেন একটি। আর এবার ডেনমার্কের বিপক্ষে আরও দু'টি। আর এতেই এমবাপে ছুঁয়ে ফেলেন পেলের একটি রেকর্ড। ২৪ বছর পূরণের আগে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ৭ গোলের রেকর্ড এখন তার দখলে।


একাত্তর/আরবিএস  

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads