ঢাকা ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯

৫ গোলের ম্যাচে সার্বিয়াকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় সুইজারল্যান্ড

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১১:১৫:৩৫
৫ গোলের ম্যাচে সার্বিয়াকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় সুইজারল্যান্ড

কাতার বিশ্বকাপের ‘জি’ গ্রুপে নিজদের শেষ ম্যাচে সার্বিয়াকে ৩-২ গোলের হারিয়ে শেষ ষোল নিশ্চিত করেছে সুইজারল্যান্ড। গ্রুপ রানার আপ হয়ে শেষ ষোলোতে পা রাখলো সুইসরা।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায় স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ মাঠে নামে এই দু’দল। 

ম্যাচের শুরু থেকেই সুইজারল্যান্ডের ওপর একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে সার্বিয়া। তবে গোলের দেখা পায়নি তারা। উল্টো ম্যাচের ২১ মিনিটে গোল খেয়ে বসে সার্বিয়া। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে শাকিরির বাঁ পায়ের দারুণ শট গোলের দেখা পায় সুইজারল্যান্ড।

জবাব দিতে বেশি সময় নেয়নি সার্বিয়া। ছয় মিনিট পরই সমতা ফেরায় তারা। বাঁ দিক থেকে দুসান তাদিচের ক্রসে ডি-বক্সে দারুণ হেডে গোলটি করেন আরেক ফরোয়ার্ড আলেকসান্দার মিত্রোভিচ।

৯ মিনিট পর এগিয়েও যায় সার্বিয়া। তাদিচের পাস বক্সে ক্লিয়ার করতে পারেননি সুইস ডিফেন্ডার রেমো ফ্রয়লার। আলগা বল পেয়ে নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন দুসান ভ্লাহোভিচ।

অন্য ম্যাচে তখনও গোলশূন্য থাকায় পয়েন্ট টেবিলে চার থেকে দুই নম্বরে উঠে আসে সার্বিয়া।

তাদের সেই স্বস্তি যদিও বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ৪৪তম মিনিটে ২-২ সমতা ফেরায় সুইজারল্যান্ড। টেবিলেও আবার দুইয়ে উঠে আসে তারা।

ডান দিক থেকে সিলভান উইডমারের পাসে কাছ থেকে বল জালে পাঠান এমবোলো। ক্যামেরুনে জন্ম নেওয়া এই ফরোয়ার্ডের আসরে গোল হলো দুটি।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে দারুণ দলীয় প্রচেষ্টায় আবার এগিয়ে যায় সুইজারল্যান্ড। এমবোলো খুঁজে নেন রুবেন ভার্গাসকে। এই ফরোয়ার্ডের ফ্লিকে বল পেয়ে গোলটি করেন ফ্রয়লার।

৫৭তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন এমবোলো। কাছ থেকে অবিশ্বাস্যভাবে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন তিনি।

৬৫তম মিনিটে আলেকসান্দার মিত্রোভিচ ডি-বক্সে প্রতিপক্ষের চ্যালেঞ্জে পড়ে গেলে পেনাল্টির আবেদন করে সার্বিয়ার খেলোয়াড়রা। রেফারি সাড়া দেননি। প্রতিবাদ জানিয়ে ডাগআউট থেকে মাঠে ঢুকে পড়েন সার্বিয়ার কয়েকজন খেলোয়াড়। একজন দেখেন হলুদ কার্ড। কিছুক্ষণ বন্ধ থাকার পর আবার শুরু হয় খেলা।

বাকি সময়ে আর পরিষ্কার সুযোগ তৈরি করতে পারেনি কোনো দল। বরং শেষ দিকে দুই দলের কয়েক জন হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। হলুদ কার্ড দেখেন দু’জন।

আরও পড়ুন: ক্যামেরুনের কাছে হেরেও গ্রুপ সেরা ব্রাজিল

পুরো ম্যাচে দুই দল মিলিয়ে হলুদ কার্ড ১১টি। ২০১০ সালের ফাইনালের পর বিশ্বকাপের কোনো ম্যাচে যা সর্বোচ্চ।

কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আগামী মঙ্গলবার লুসাইল স্টেডিয়ামে ‘এইচ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালের মুখোমুখি হবে সুইজারল্যান্ড।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

Nagad Ads