সেকশন

শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

মডেলিংয়ের নামে বিবস্ত্র ছবি তুলে টাকা আদায়, তরুণী গ্রেপ্তার

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৬ পিএম

টিকটক ও শর্ট ফিল্ম এর মডেল বানানোর নামে তরুণীদের ডেকে এনে পৈশাচিক কায়দায় নির্যাতন করে মুক্তিপণ আদায় করা এক চক্রকে গ্রেপ্তার করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ। এই চক্রের মূল হোতা বগুড়া জেলার ধুনট থানার রাঙ্গামাটি গ্রামের আলমগীরের ফকিরের মেয়ে নূরিতা ওরফে সুরাইয়া (২৩) গ্রেপ্তার করলেও চকরিয়ার অপর সদস্য মারুফ পলাতক রয়েছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় সহকারী পুলিশ সুপার কেরানীগঞ্জ সার্কেল শাহাবুদ্দিন কবির এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শাহাবুদ্দিন কবির জানান, ভিকটিম সোনিয়াকে আসামি নূরিতা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে শর্ট ফিল্মে অভিনয় করার কথা বলে ডেকে এনে একটি ঘরের মধ্যে বন্ধ করে তার সহযোগী মারুফসহ কয়েকজনকে নিয়ে পাশবিক নির্যাতন করে ও হাত-পা বেঁধে মারধর করে মুক্তিপণ দাবি করে। সোনিয়া পরবর্তীতে মারধর সহ্য করতে না পেরে আত্মীয়-স্বজনের কাছে ফোন করে মুক্তিপণের জন্য ৮ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে এনে, নিজের মোবাইল ফোন এবং ব্যবহৃত স্বর্ণালঙ্কার তাদের হাতে তুলে দিলে তারা ভিকটিম সোনিয়াকে চোখে কালো চশমা পরিয়ে রাতের অন্ধকারে বসুন্ধরা রিভারভিউ এলাকায় ঝোঁপের মধ্যে ফেলে যায়।

সেখান থেকে বাসায় ফিরে পরদিন সকালে থানায় এসে ভিকটিম থানায় এসে অভিযোগ করলে তার অভিযোগ আমলে নিয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) খালেদুর রহমান তদন্ত শুরু করে। এরই এক পর্যায়ে গতকাল সন্ধ্যায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন হাসনাবাদ মোকামপাড়া নান্নু মিয়ার বাড়ির দ্বিতীয় তলায় অভিযান পরিচালনা করে এই চক্রের মূল হোতা নূরিতাকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় পুলিশের অভিযান টের পেয়ে তার সহযোগী মারুফ কৌশলে পালিয়ে যায়। মারুফ ও তার কয়েকজন সহযোগীকে গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, এই চক্রের মূল হোতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একই সঙ্গে নুরিতার ফাঁদে পড়া আরও এক কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

নূরিতার দেওয়া তথ্যের বর্ণনা দিয়ে ওসি বলেন, চক্রটি প্রথমে মোবাইল ফোনে উঠতি বয়সী তরুণীদের টার্গেট করে তাদের সঙ্গে ম্যাসেজ ও ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। পরে টার্গেট তরুণীকে টিভি নাটক ও ইউটিউবে মডেল হিসেবে নাটক তৈরি করার জন্য অভিনয় করতে নির্ধারিত স্থানে আসতে বলেন। আসার পরে প্রতারক চক্রের লোকজন তাকে সিএনজি অথবা মাইক্রোবাসে তোলেন এবং মডেলের হাতে একটি স্কিপ্ট দেওয়া হয়।

পরে ভুক্তভোগীদের অচেনা জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রথমে মডেলকে অপহরণ দৃশ্যের অভিনয়ের কথা বলে হাত-পা বাঁধে অভিযুক্তরা। এরপর অভিনয়ের কথা বলে মডেলকে বিবস্ত্র করে নানান ছবি তোলে। পরে সেই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তরুণীর অভিভাবকদের কাছে ফোনে যোগাযোগ করে ও মোটা অঙ্কের অর্থ আদায় করেন। টাকা পেয়ে ভুক্তভোগী তরুণীকে কালো কাপড় দিয়ে চোখ বেঁধে অচেনা স্থানে ফেলে রেখে আসেন। আর যারা টাকা দিতে ব্যর্থ হন তাদের দিয়ে জোরপূর্বক আটক রেখে দেহ ব্যবসা করানো হয়।

আরও পড়ুন: ২২ সালের পর ঢাকার উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য থাকবে না: মেয়র তাপস

তিনি আরও বলেন, মডেল বানানোর নামে তরুণীদের ডেকে এনে পৈশাচিক কায়দায় নির্যাতন করে মুক্তিপণ আদায় করা এই চক্রটি সোনিয়া নামে এক তরুণীকে এভাবে প্রলোভন দেখিয়ে আটক করেন। পরবর্তীতে মারধর সহ্য করতে না পেরে আত্মীয়-স্বজনের কাছে ফোন করে মুক্তিপণের জন্য ৮ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে এনে দেন সোনিয়া। পরবর্তীতে সোনিয়ার মোবাইল ফোন ও তার ব্যবহৃত স্বর্ণালঙ্কার প্রতারক চক্রটি রেখে তাকে চোখে কালো চশমা পরিয়ে রাতের অন্ধকারে বসুন্ধরা রিভারভিউ এলাকায় ঝোপের মধ্যে ফেলে যান। সেখান থেকে বাসায় ফিরে পরদিন সকালে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় এসে অভিযোগ করেন ওই তরুণী।

image


পুলিশ মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন হাসনাবাদ মোকামপাড়া এলাকায় নান্নু মিয়ার মিয়ার বাড়ির দ্বিতীয় তলায় অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় চক্রের মূল হোতা নূরিতাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশের অবস্থান বুঝতে পেরে নূরিতার সহযোগী মারুফ কৌশলে পালিয়ে যান। মারুফ ও তার কয়েকজন সহযোগীকে গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।


একাত্তর/আরএ

ফেনী শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, আল জামেয়াতুল ফালাহিয়া কামিল মাদ্রাসা মিলনায়তনে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো বিদেশে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক এক সেমিনার।
বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরিতে ‘রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার ২০২১’ অর্জন করেছে স্নোটেক্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠান স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেড। স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেডের পক্ষে এ সম্মাননা গ্রহণ করেন...
আসন্ন ঈদুল আযহার আনন্দ আরও বাড়িয়ে দিতে দেশের জনপ্রিয় ইলেকট্রনিক্স কোম্পানি মিনিস্টার নিয়ে এসেছে ‘হাম্বা অফার’। মিনিস্টারের নির্দিষ্ট মডেলের ফ্রিজ কিনলেই গ্রাহক পেয়ে যেতে পারেন বিশাল গরু, অসংখ্য...
মেডিটেশন হলো মনের ব্যায়াম। নীরবে বসে সুনির্দিষ্ট অনুশীলনে বৃদ্ধি পায় মনোযোগ ও সচেতনতা। মনের স্বেচ্ছা নিয়ন্ত্রণে সৃষ্টি হয় ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। প্রশান্তি আর সুখানুভূতি বাড়ানোর পাশাপাশি গভীর আত্মনিমগ্ন
সাবেক পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদের সম্পদ জব্দের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর আদালত। সেই সাথে তার ৩৩টি ব্যাংক হিসাব ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সব লেনদেন বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। 
ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যাকাণ্ডে শুরু থেকে এক রহস্যময়ী নারীর প্রকাশ্যে আসে। বলা হয় শিলাস্তি রহমান নামে এই নারীই এমপি আনারকে কলকাতায় নিয়ে আসেন।
শ্বাসরোধ করে খুন করে চপার দিয়ে দেহ টুকরো। শরীর থেকে ছাড়ানো হয়, চামড়া। আলাদা করা হয় হাড় মাংস। পরে দেহাংশ ফেলা হয় পোলেরহাট আর ভাঙরে।
কলকাতায় খুন হওয়া বাংলাদেশের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের দেহাংশের খোঁজে এবার আটঘাট বেঁধে অভিযানে নেমেছে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি। 
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত