সেকশন

মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

কেন বারবার রমনা, উদীচী, ২১ আগস্টের মতো নৃশংসতা

আপডেট : ২১ আগস্ট ২০২৩, ০২:৫৪ পিএম

আদালতে বিচার, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নজরদারি বা প্রগতিশীল মানুষের ঘৃণা কিছুই আটকাতে পারছেনা উগ্রবাদকে। প্রতিক্রিয়াশীলদের উসকে দিতে গত কয়েক দশক ধরেই চলছে রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতা। সঙ্গে আছে, দেশি-বিদেশি মদদের অভিযোগ। ফলে, বারবার মুখোমুখি হতে হয়েছে রমনা-উদীচী এবং ২১ আগস্টের মতো নৃশংসাতার। 

বিশ্লেষকদের মতো, দেশে জঙ্গি তৎপরতাকে তিন ভাগে ভাগ করা যায়। আশির দশকের মধ্যভাগে আফগান ফেরত মুজাহিদদের দল মুসলিম মিল্লাত বাহিনী ও শেষ দিকে জন্ম নেওয়া হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী বাংলাদেশ বা হুজি-বি। যারা প্রথম প্রজন্মের জঙ্গি সংগঠন। এরপর আসে জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ, আল–কায়েদার অনুসারী আনসার আল ইসলাম ও নব্য জেএমবি। সবগুলো দলেরই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য এক, অর্থাৎ দেশে শরিয়া আইনভিত্তিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা। অসাম্প্রদায়ীক চিন্তা-চেতানার দল ও ব্যক্তিরাই তাদের প্রধান টার্গেট। 

ডিবিসির সম্পাদক জায়েদুল ইসলাম পিন্টু বলেন, আশির দশকের জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর টার্গেট ছিলো আওমী লীগের মতো রাজনৈতিক দল ও প্রগতিশীল মানুষ। সাত বছরে কেবল হুরকাতুল জিহাদই ১৩টি জঙ্গি হামলায় হত্যা করেছে ১০১ জন মানুষকে। যার মধ্যে ২১ আগস্টের হামলা অন্যতম। 

তিনি বলেন, নিজেদের মতাদর্শ বাস্তবায়নে হুরকাতুল জিহাদের মতো জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো সব সময় সমমনাদের বেছে নিয়েছে। যেমনটা দেখা গেছে বিএনপি-জামায়াতের জোট সরকারের সময়।   

সিনিয়র সাংবাদিক জুলফিকার আলী মানিক বলেন, সে সময় জঙ্গিরা দেশে-বিদেশে সহায়ক শক্তি ও মদদ দুটোই পেয়েছে। তাদের সেই চেষ্টা আজও চলছে।

আরও পড়ুন: ২১ আগস্ট: ডেথ রেফারেন্স ও আপিল শুনানির জন্য প্রস্তুত

এদিকে মার্কিন সাময়িকী দ্য ফিসক্যাল টাইমস বলছে, ইরাক ও সিরিয়ায় নিজেদের অবস্থান হারিয়েছে আইএস। তাই মুসলিম অধ্যুষিত দেশগুলোই এখন তাদের লক্ষ্য। 


একাত্তর/এসি

কথায় বলে চোরের ওপর বাটপারি। ঠিক এমন কাণ্ডই ঘটেছে চট্টগ্রাম বন্দরে। মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে মোবাইল চার্জার আনার কথা বলে বিদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ ল্যাপটপ ও কম্পিউটার মনিটর এনেছিলেন এক অসাধু ব্যবসায়ী।
চির নতুনেরে দিলো ডাক, পঁচিশে বৈশাখ। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩তম জন্মবার্ষিকী। সঙ্কটে, সাহসে, আনন্দ-বেদনায় বাঙালির প্রতি মুহূর্তের আশ্রয় রবীন্দ্রনাথ ও তার সৃষ্টিসম্ভার। আজ যখন হিংসায় উন্মত্ত...
গরমে হাঁস ফাঁস করতে থাকা নগরবাসী এখন একটু ছায়ার খোঁজে মরিয়া। কিন্তু ঢাকায় ভবনের উত্তপ্ত ছায়া ছাড়া গাছের শীতল ছায়ার দেখা মেলা বিরল। অথচ প্রকৃতির এই বিরুপ আচরণের জন্য আমরাই দায়ি।
ড. এ কে আব্দুল মোমেন সৌদি আরবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা ছেড়ে জাতিসংঘে বাংলাদেশের মিশনে স্থায়ী প্রতিনিধির মতো গুরুত্বপূর্ণ কূটনৈতিক দায়িত্বে ছিলেন অনেক বছর। শেষ দায়িত্বে গত পাঁচ বছর দেশের...
ঘূর্ণিঝড় রিমাল রোববার রাত ৯টার দিকে উপকূলীয় অঞ্চলের মূল ভূখণ্ডে আঘাত হানে। এ সময় সুন্দরবন সংলগ্ন নদ-নদীতে ছিল ভাটার প্রবাহ। যার কারণে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধের তেমন ক্ষয়ক্ষতি...
বাংলাদেশে কর্মরত বৈধ-অবৈধ বিদেশি কর্মীদের তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী তিন মাসের মধ্যে এই তালিকা জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
তৃতীয় ধাপে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
চিকিৎসার জন্য ভারতে এসেছিেলেন বাংলাদেশের ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার। পশ্চিমবঙ্গ ও ঢাকার পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, কলকাতার নিউটাউন এলাকার একটি ফ্ল্যাটে হত্যা করা হয়েছে...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত