সেকশন

শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

তাপপ্রবাহে আমের ফলনে বিরূপ প্রভাব

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২২ পিএম

চলমান তাপপ্রবাহের কারণে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমের ফলনে বিরূপ প্রভাব পড়েছে। শতকরা ৬০ ভাগ মুকুল আসলেও বৈরী আবহাওয়ায় মাত্র ২৫ ভাগ গাছে আম ঝুলছে। দ্রুত বৃষ্টি না হলে বা সেচ দিতে না পারলে অবশিষ্ট আমও ঝরে যাবার শঙ্কা রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের আম চাষি আহসান হাবিব এবছর সাড়ে ১৪ বিঘা জমি দীর্ঘ মেয়াদে লীজ নিয়ে আম চাষ করছেন। পেয়েছেন সরকারি প্রণোদনাও। এরপরও চলতি বছর তার পরিচর্যা খরচ প্রায় ৭ লাখ টাকা। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে তার বাগানের ৬০ ভাগ আম কমে এখন ৪০ ভাগে নেমেছে। এই আমও টেকাতে না পারলে ক্ষতি হবে অন্তত তিন লাখ টাকা।

এমন অবস্থা পুরো জেলার আম চাষিদের। প্রচণ্ড তাপদাহ থেকে বাঁচাতে প্রতিদিন সেচ দিচ্ছেন তারা। দিচ্ছেন ছত্রাক নাশক কীটনাশক।আর যাদের সেচ দেয়ার মত অর্থ নেই তাদের অবস্থা আরও করুণ।

চাষি আহসান হাবিব জানান, প্রতি বিঘায় একদিন পানি দিতে লেগে যায় তিন থেকে চার হাজার টাকা। 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাগানগুলোতে সাম্প্রতিক চৈত্রের বৃষ্টিতে ঝরে গেছে আমের মুকুল। ফলে গাছে পর্যাপ্ত গুটি আসেনি। এখন তাপপ্রবাহে গাছের গোড়া শুকিয়ে মাটিতে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। এতে ঝরে যাচ্ছে আম।

আম রক্ষায় বাগানে সেচের পাশাপাশি গাছে পানি ছিটানোর পরামর্শ দিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোখলেসুর রহমান।

তিনি বলেন, চাষিদের আমরা ১০ দিন পরপর সেচ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছি।

চলতি বছর জেলায় মোট ৪ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে কৃষি বিভাগ। যা গত বছরের তুলনায় ২৫ হাজার মেট্রিক টন বেশি।

 

একাত্তর/আরএ
গবাদিপশু লালন-পালনে দেশের অন্যতম বড় জেলা সিরাজগঞ্জ। সারাদেশে চাহিদার কথা মাথায় রেখে এই জেলার সদর ও শাহজাদপুর উপজেলায় গড়ে উঠেছে গবাদিপশুর কয়েক হাজার খামার।
কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুস শহীদ বলেছেন, তাপপ্রবাহের কারণে চলতি মৌসুমে আমের ফলন কম হয়েছে। তাই আম নিয়ে সিন্ডিকেট হতে পারে।
কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে তীব্র গরমে শ্রেণীকক্ষেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩০ শিক্ষার্থী। এরপর তড়িঘড়ি করে ক্লাস বন্ধ রেখে বিদ্যালয় ছুটি দিয়ে দেয়া হয়।  
উজান থেকে পর্যাপ্ত পানি না আসায় শুকিয়ে যাচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রমত্তা পদ্মা। নদীতে জেগে উঠেছে বালুচর, কোথাও কোথাও হাঁটু পানি। নাব্যতা সঙ্কটে মাঝ নদীতেও আটকে যায় মালবাহী বাল্কহেড। আর পানির অভাবে...
রহস্যজনক ও নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার তিনবারের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের পুরো মরদেহ পাওয়ার আশা নেই। তবে, দেহাবশেষ উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে সিআইডির টিম উদ্ধার ও স্থানীয় থানা পুলিশ।
হার দিয়ে শুরু হওয়ায় শঙ্কা ছিলো সিরিজ খোয়ানোর। সিরিজে টিকে থাকতে এই ম্যাচের জয়ের বিকল্প ছিলো না। তবে শঙ্কাই সত্যি হলো। সিরিজ হারলো বাংলাদেশ।
নব্বইয়ের দশকের অত্যন্ত জনপ্রিয় ও আলোচিত জুটি সঞ্জয় দত্ত ও মাধুরী দীক্ষিত। তাদের প্রেম পর্দা থেকে গড়িয়েছিল বাস্তব জীবনে। এর পর বিচ্ছেদ, বিতর্ক আর অভিযোগের পাহাড়ে যেন তারা চাপা পড়ে যান। বিচ্ছেদের পর...
জন্মস্থান মাশহাদে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। কয়েকদিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বৃহস্পতিবার ইরানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এই শহরে ইমাম আলী আল-রেজার...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত