সেকশন

শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হলো ২৮৮ সেনা-বিজিপিকে

আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৮ এএম

সশস্ত্র বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুদ্ধের মধ্যে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া মিয়ানমারের সেনা ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিজিপি) ২৮৮ জন সদস্যকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টার দিকে কক্সবাজারে বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে দুই দেশের প্রতিনিধি দলের উপস্থিতিতে ইমিগ্রেশন ও যাচাই-বাছাই কার্যক্রম শেষে তাদের হস্তান্তর করা হয়। পরে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে কক্সবাজার শহরের নুনিয়াছড়ায় বিআইডব্লিটিএ ঘাট থেকে তাদের টাগবোটে তুলে দেয়া হয়।

গভীর সাগরে নিয়ে যাওয়ার পর সাড়ে ৯টার দিকে সেন্টমার্টিন উপকূল হয়ে রাখাইন রাজ্যের সিথুরে (আকিয়াব) বন্দরের দিকে রওনা হয় সেনা ও বিজিপির সদস্যবাহী জাহাজ ‘চিন ডুইন’।

বিজিপি সদস্যদের হস্তান্তর উপলক্ষে কক্সবাজারে বিআইডাব্লিউটিএ ঘাটের কাছে বিজিবির প্রতিনিধিদলের সঙ্গে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের প্রতিনিধিদলের বৈঠক হয় সকালে। এতে বিজিবির প্রতিনিধিদল ও মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

যে জাহাজে মিয়ানমারের সেনা ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা ফিরে গেলেন এই জাহাজেই বুধবার দুপুরে দেশটির কারাগারে সাজার মেয়াদ শেষ হওয়া ১৭৩ জন বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হয়।

বিজিবি, পুলিশ ও জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ২৮৮ জনের মধ্যে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সদস্য আছেন ২৬১ জন, সেনাসদস্য ২৩ জন এবং বাকি ৪ জন ইমিগ্রেশন সদস্য।

গত ৩ মার্চ থেকে মিয়ানমারের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মির (এএ) সঙ্গে লড়াইয়ে টিকতে না পেরে প্রাণ বাঁচাতে একাধিক দফায় সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর ২৮৮ জন সদস্য নাফ নদী ও স্থলসীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশের টেকনাফ ও নাইক্ষ্যংছড়িতে পালিয়ে আশ্রয় নেন।

এতদিন তাদের বিজিবির হেফাজতে নাইক্ষ্যংছড়ির একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাখা হয়েছিল।

এর আগে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি আরও ৩৩০ জন সেনা ও বিজিপি সদস্যকে জাহাজে করে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হয়।

 

একাত্তর/আরএ
বিভিন্ন সময়ে মিয়ানমারে আটক হয়ে সে দেশে কারাভোগ করার পর সরকারের উদ্যোগে ১৭৩ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন।
যুদ্ধে অস্ত্রের পেছনে অর্থ ব্যয় না করে সে টাকা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় খরচ করলে বিশ্ব রক্ষা পেতো বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ পৃথিবী গড়তে ছয়টি...
মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘর্ষের জেরে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির ১৭৯ জন সদস্য এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।
মিয়ানমারের রাখাইনে জান্তা সেনা ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির মধ্যে তুমুল লড়াইয়ের মুখে প্রাণে বাঁচতে সেখানের রোহিঙ্গারা নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে ছড়িয়ে পড়ছেন নানান জায়গায়। এক্ষেত্রে...
রহস্যজনক ও নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার তিনবারের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের পুরো মরদেহ পাওয়ার আশা নেই। তবে, দেহাবশেষ উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে সিআইডির টিম উদ্ধার ও স্থানীয় থানা পুলিশ।
হার দিয়ে শুরু হওয়ায় শঙ্কা ছিলো সিরিজ খোয়ানোর। সিরিজে টিকে থাকতে এই ম্যাচের জয়ের বিকল্প ছিলো না। তবে শঙ্কাই সত্যি হলো। সিরিজ হারলো বাংলাদেশ।
নব্বইয়ের দশকের অত্যন্ত জনপ্রিয় ও আলোচিত জুটি সঞ্জয় দত্ত ও মাধুরী দীক্ষিত। তাদের প্রেম পর্দা থেকে গড়িয়েছিল বাস্তব জীবনে। এর পর বিচ্ছেদ, বিতর্ক আর অভিযোগের পাহাড়ে যেন তারা চাপা পড়ে যান। বিচ্ছেদের পর...
জন্মস্থান মাশহাদে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। কয়েকদিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বৃহস্পতিবার ইরানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এই শহরে ইমাম আলী আল-রেজার...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত