সেকশন

বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
 

ঐতিহাসিক রায়ে কারাগার থেকে বাড়ি ফিরলো ৭০ শিশু

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৩ পিএম

আসন্ন শিশু দিবসকে সামনে রেখে কারাগারে থাকা ৭০ জন শিশুকে সংশোধনের জন্য মা-বাবার জিম্মায় পাঠানোর বিরল রায় দিয়েছেন সুনামগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ও শিশু আদালত। আদালতের এই রায়ের ফলে লঘু অপরাধের ৫০টি ভিন্ন মামলায় ৭০ জন শিশু এখন নিজের বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে থেকেি নিজেদের সংশোধন করার সুযোগ পেলো। 

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকালে সুনামগঞ্জ নারী শিশু ও নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ও শিশু আদালতের বিচারক মো. জাকির হোসেন এই রায় দেন। কারাগার থেকে বের হওয়ার পর আদালত কর্তৃপক্ষ ওই শিশুদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন।

আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী, বাড়িতে ফেরার পর ওই শিশুদের কার্যক্রম ও গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করবেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। 

সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট নান্টু রায় বলেন, কোমলমতি এই ৭০ জন শিশুকে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে মামলায় জড়ানো হয়েছিল। অভিযুক্ত এসব শিশুদের পরিবারের সঙ্গে আদালতে হাজিরা দিতে হতো। এর ফলে শিশুদের ভবিষ্যত এক অনিশ্চিয়তার মুখে পড়ে। তাদের শিক্ষাজীবন ব্যহত হয়। স্বাভাবিক জীবনে শিশুদের বেড়ে ওঠা হুমকির সম্মুখীন হয়। শিশুদেরকে এসব অসুবিধা থেকে মুক্তি দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নিতে মামলা সমূহ দ্রুত নিস্পত্তি করে দিয়েছেন বিচারক। 

তিনি আরও জানান, কারাগারের পরিবর্তে পরিবারের সদস্যদের সাথে রেখে সংশোধনের কিছু নির্দেশনাও দিয়েছেন আদালত। পরিবারের সান্নিধ্যে এসব কোমলমতি শিশুরা স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ পাবে এবং সুন্দর জীবন গঠনের সুযোগ পাবে। এসব শিশুদের জীবনকে আরও সুন্দরভাবে গড়ার জন্য বিচারকের এমন বিরল রায়কে আমরা শ্রদ্ধা জানাই।

image


যে সব শর্তে শিশুদের সংশোধনের সুযোগ দিয়ে পরিবারের কাছে ফেরত পাঠানো হয়েছে সেগুলো ঠিকঠাক পালন করা হচ্ছে কিনা তা আগামী এক বছর জেলা প্রবেশন কর্মকর্তা মো. শফিউর রহমান পর্যবেক্ষণ করবেন এবং প্রতি তিনমাস অন্তর অন্তর আদালতকে অবহিত করবেন। 

এডভোকেট নান্টু রায় বলেন, যে সব শর্তাবলী পালনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত তা হলো; প্রতিদিন দুইটি ভালো কাজ করা এবং তা তাদেরকে আদালত কর্তৃক প্রদত্ত ডায়েরিতে তা লিখে রাখা ও বছর শেষে ডায়েরি আদালতে জমা দেওয়া, বাবা-মাসহ গুরুজনদের আদেশ নির্দেশ মেনে চলা এবং বাবা মায়ের সেবা যত্ন করা ও কাজে কর্মে তাদের সাহায্য করা, নিয়মিত ধর্মগ্রন্থ পাঠ করা এবং ধর্মকর্ম পালন করা, অসৎ সঙ্গ ত্যাগ করা, মাদক থেকে দূরে থাকা,  ভবিষ্যতে কোন অপরাধের সাথে নিজেকে না জড়ানোসহ আরও কিছু নির্দেশনা পালনের শর্ত দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: এবার ৫২ পদ নিয়ে কলকাতা মাতাচ্ছেন নয়না

তিনি আরও বলেন, আদালতের নির্দেশনাগুলো তাদের সুনাগরিক হিসাবে গড়ে ওঠার সুযোগ দেবে। শিশুরা তাদের আপন ঠিকানা ফিরে পেলে স্বাভাবিক বিকশিত হবে এবং বাবা-মা’র দু:শ্চিন্তার অবসান হবে।


একাত্তর/আরবিএস  

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ট্রাক চাপায় এক পথচারীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার এশিয়ান হাইওয়ে সড়কের গোলাকান্দাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
বাস-মোটরসাইকলের মুখোমুখি সংঘর্ষে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চতুর্থ দিনের দিনের মতো সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
একাত্তর টেলিভিশনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রচারের পর কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সড়কের সাড়ে তিন হাজারের বেশি গাছকাটার সরকারি সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে প্রশাসন।
তীব্র তাপদাহে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে দেশের মানুষের জনজীবন। তাপদাহে বিভিন্ন জেলার হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে গরমজনিত রোগে আক্রান্তদের ভিড়।
সরকারের ব্যর্থতার কারণে দেশে খাদ্যপণ্য আমদানি করতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
ডেইলি স্টারের সাবেক নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল হকের বাসার গৃহকর্মী প্রীতি উরাং-এর মৃত্যুর ঘটনায় গুরুতর অপরাধে লঘু মামলা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছে সচেতন নাগরিক সমাজ।
চলমান তাপপ্রবাহ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে স্কুল-কলেজ খোলা না খোলার বিষয়ে শনিবার নতুন করে সিদ্ধান্ত হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বেগম শামসুন নাহার।
‘সারেগামাপা’ এমন একটি মিউজিক্যাল শো, যা দুই বাংলায় অত্যন্ত জনপ্রিয়। উদীয়মান সংগীতশিল্পীদের নিজেকে যাচাই ও মূল্যায়ন করার অন্যতম প্ল্যাটফর্ম এটি । বলা যায় নতুন এই শিল্পীদের জায়গা করে দেওয়ার আরেক নাম...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত