সেকশন

বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

চট্টগ্রামের সবচেয়ে সুন্দর সড়কের গাছ কেটে ফেলার পরিকল্পনা!

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২৩ পিএম

চট্টগ্রামে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের র‍্যাম্প নির্মাণের জন্য নগরীর সবচেয়ে সুন্দর সড়কে শতাধিক গাছ কাটার পরিকল্পনা নিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-সিডিএ। গাছ কাটতে বন বিভাগ অনুমতি দিলেও এখনও অনুমতি দেয়নি ভূমির মালিক রেলওয়ে। এদিকে সড়কের গাছ কাটার বিরোধিতা করছে পরিবেশকর্মী ও নগরবাসী। 

চট্টগ্রামে টাইগারপাস থেকে পলোগ্রাউন্ড পর্যন্ত সবুজে ঢাকা সড়কের একটি অংশ গেছে পাহাড় ঘেঁষে ওপর দিয়ে। আরেকটি অংশ পাহাড়ের পাদদেশে। মধ্যবর্তী পাহাড়ি ঢালে শতবর্ষীসহ নানান প্রজাতির ছোট-বড় গাছ। এক্সপ্রেসওয়ের র‍্যাম্প নির্মাণের জন্য শতাধিক গাছ কাটবে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-সিডিএ।

তবে অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এই এলাকায় শতবর্ষী গাছ কেটে র‍্যাম্প নির্মাণের বিরোধিতা করছেন পরিবেশকর্মী ও সচেতন নাগরিকরা। 

নগরীর সবচেয়ে সুন্দর সড়কের সৌন্দর্যহানি ও পরিবেশ ধ্বংস করে কোনো উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সমর্থনযোগ্য নয়, বলছেন নগর পরিকল্পনাবিদরা। প্রয়োজনে নকশা বা স্থান পরিবর্তন করে র‍্যাম্প নির্মাণের পরামর্শ তাদের। 

চট্টগ্রাম ইঞ্জিনিয়ার ইন্সটিটিউটের সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার দেলোয়ার মজুমদার বলেন, কথা বললেই বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প। জনগণের আকাঙ্ক্ষার সাথে যখন প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের সংগতি দেখা দেয়, তখন জনগণের সাথে প্রধানমন্ত্রীর দূরত্ব বেড়ে যায়। প্রধানমন্ত্রীর সাথে জনগণের দূরত্ব যারা বাড়াচ্ছে আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাদের বিচার কামনা করছি। 

এ বিষয়ে ক্যামেরায় কোনো কথা বলতে রাজী হননি প্রকল্প পরিচালক। অবশ্য কিছু গাছ কাটার কথা স্বীকার করলেও প্রয়োজনে নকশা পরিবর্তনের জানান সিডিএ'র প্রধান প্রকৌশলী।

সিডিএ'র প্রধান প্রকৌশলী  কাজী হাসান বিন শামস বলেন, শতবর্ষী গাছ কাটবো না। শতবর্ষী গাছ এখান পড়ছে না, কিছু ছোট গাছ পড়ছে। গাছগুলোকে রেখে নকশা যতোটা পরিবর্তন করা যায় সেটাই চেষ্টা করছি। 

চার হাজার ২৯৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন চট্টগ্রামের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন চলছে ১৫ পয়েন্টে র‍্যাম্প নির্মাণের কাজ। 

আরবিএস
চট্টগ্রাম মহানগরীর চান্দগাঁওয়ে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে হামলা চালিয়ে কুপিয়ে রেস্টুরেন্ট কর্মী রিয়াদকে হত্যার দুই আসামিকে রাজধানীর সদরঘাট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৭।
চট্টগ্রামে কিশোর গ্যাংয়ের হাত থেকে অপহৃত এক কিশোরকে উদ্ধার করেছে খুলশী থানা পুলিশ। এসময় মুক্তিপণ দাবি করা গ্যাং লিডার, সাত সহযোগীসহ আট জনকে গ্রেপ্তার এবং দেশীয়,আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
আসন্ন বর্ষা মৌসুমেও জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পাবে না চট্টগ্রামবাসী। কারণ জলাবদ্ধতা নিরসনে নেয়া চারটি প্রকল্পের কোনটাই শেষ হয়নি, শিগগিরই শেষও হবে না।
গবাদিপশু লালন-পালনে দেশের অন্যতম বড় জেলা সিরাজগঞ্জ। সারাদেশে চাহিদার কথা মাথায় রেখে এই জেলার সদর ও শাহজাদপুর উপজেলায় গড়ে উঠেছে গবাদিপশুর কয়েক হাজার খামার।
দেশের কয়েক জেলার ওপর দিয়ে আবারও বইছে তাপপ্রবাহ। যা অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। পাশাপাশি কিছু কিছু জায়গায় বৃষ্টির পূর্বাভাসে মিলেছে।
ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে নৃশংস হত্যার ঘটনা তদন্তে বাংলাদেশে আসছেন ভারতের পুলিশের একটি দল।
শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. ইউনূসের জামিনের মেয়াদ ৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।
রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন পূর্ব বাড্ডার টেকপাড়া এলাকায় একটি বাড়ির ভেতরে হাতবোমা তৈরির আস্তানায় অভিযান চালিয়ে ৬৫টি শক্তিশালী হাতবোমা উদ্ধার করেছে র‍্যাব৷ এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৩ জন আটক করা হয়েছে।
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত