সেকশন

শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
 

বিজেপির শক্তি খর্ব করতে চায় জোটের শরিকরা!

আপডেট : ১০ জুন ২০২৪, ০৭:০৬ পিএম

গত দশ বছরে যা যা করতে হয়নি কিংবা করার প্রয়োজনও মনে করেনি, এবার ঠিক তাই তাই করতে হচ্ছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপিকে। এবারের লোকসভা নির্বাচন ফলই নরেন্দ্র মোদীর দলকে বাধ্য করছে এসব কাজ করতে, আর সেটি হচ্ছে জোট শরিকদের সামলে রাখা। যা, নির্বাচনেন আগে ভাবতেও পারেনি বিজেপি। কিন্তু ভোটের ফল আসতেই উল্টে গেছে সব কিছু।

রাজনীতিতে শেষ কথা বলে কিছু নেই। আর সেটাই যেন আরও একবার প্রমাণ করলো ভারতের অভাবনীয় লোকসভা নির্বাচন। ফল শেষে দেখা গেলো, আর একার পক্ষে বিজেপির সরকার গঠন সম্ভব নয়। জোটের দুই প্রধান শরিক অন্ধ্র প্রদেশের টিডিপি আর বিহারের জেডিইউ-এর কাছ থেকে লিখিত সমর্থন নিয়ে তবেই সরকার গঠন করতে হয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীর বিজেপি’কে।

এরিমধ্যে সরকার গঠনেরও এক ধাপ পূরণ হয়ে গেছে। রোববরাই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শপথ নিয়েছেন ৭১ জন মন্ত্রী। এবার তাদের মন্ত্রনালয় বন্টনের পালা, যা সোমবার নতুন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকেই মন্ত্রীদের এই ভাগাভাগি হয়ে যেতে পারে। আর এখানেই উঠছে একটা বড় প্রশ্ন। বিজেপির নিয়ন্ত্রণে থাকা মন্ত্রনালয়গুলোতে যদি ভাগ বসাতে যায় শরিক দলগুলো?

গত দশ বছরে যেসব মন্ত্রনালয়ের উপর ভর করে উন্নয়নযজ্ঞ চালিয়েছে, সেসব মন্ত্রনালয়েই নজর পড়েছে শরিকদের। স্বরাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, গ্রামোন্নয়ন, সড়ক পরিবহনের মতো দপ্তরগুলো বরাবরই বিজেপির হাতে থেকেছে। এই মন্ত্রনালয়ের কাজ নিয়ে জনগণের মধ্যে ভালো ভাবমূর্তিও রয়েছে। এবার সেসব মন্ত্রনালয়ের দিকেই নজর জোট শরিকদের, তথা টিডিপি ও জেডিইউ’র।

জোট সঙ্গীরাও ঝোপ বুঝে কোপ মারছেন। একদিকে টিডিপি যেখানে স্পিকার পদ চেয়েছে, তেমনই তাদের নজর প্রথম থেকেই স্বরাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, গ্রামোন্নয়নের উপরে। অন্যদিকে জেডিইউ-ও কম যায় না। রেলের দাবিতে অনড় তারা। বিহারের আরেক দল, এলজেপিও পেয়েছে মন্ত্রিত্ব, তারা চাইছে খাদ্য ও গণবিপণন মন্ত্রনালয়। আর কর্নাটকের দল জেডিএস চেয়েছে কৃষি মন্ত্রনালয়।

তবে সূত্র বলছে, স্বরাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, অর্থ ও পররাষ্ট্র এই চার গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর নিজের হাতেই রাখবে বিজেপি। পাশাপাশি সড়ক ও পরিবহণও ছাড়তে নারাজ বিজেপি। এসব বাদ দিয়েই শরিকদের অন্যান্য মন্ত্রনালয় ছেড়ে দিতে পারে মোদীর দল। বলা হচ্ছে, জোটকে ১১ মন্ত্রি পদ ছেড়ে দেয়াতেই স্পষ্ট হয়ে উঠছে যে, আগামী পাঁচ বছর শরিকদের মুখাপেক্ষিই হয়ে থাকতে হচ্ছে বিজেপি-কে।

এআর
ভারতের লোকসভা নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেয়ে জোট শরিকদের সমর্থনে টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করেও শান্তিতে নেই নরেন্দ্র মোদীর দল- বিজেপি। শুরু থেকেই শরিকদের আবদার মেটাতে গিয়ে হিমশিম...
এবারের লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদীকে শক্ত ছবক শিখিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তাই তো তিনি ছুটে গিয়েছেন কেরালায়। কংগ্রেসের বিপুল সফলতার জন্যে ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন...
ভারতের লোকসভা নির্বাচনে প্রত্যাশিত ফল পেতে ব্যর্থ হয়েছে সদ্য শপশ নেয়া নরেন্দ্র মোদীর দল বিজেপি। ফলে প্রথমবারের মতো জোট শরিকদের উপর নির্ভর করেই সরকার গঠন করতে হয়েছে গত দুই মেয়াদে দাপটের সঙ্গে ভারতকে...
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে ৭২ জনের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যরা শপথ নেয়ার পরদিন সোমবার বুঝে নিয়েছেন নিজ নিজ মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব।
‘যুগ বদলে একাত্তর’- স্লোগান সামনে রেখে ১২ পেরিয়ে ১৩ বছরে পা রাখলো দেশের প্রথম সংবাদভিত্তিক এইচডি টেলিভিশন একাত্তর।
দীর্ঘ এক যুগ চড়াই-উৎরাইয়ের মধ্য দিয়ে মানুষের মন জয় করে নেওয়া দেশের অন্যতম জনপ্রিয় চ্যানেল একাত্তর টেলিভিশন পথ চলার ১২ বছর পূর্ণ করলো।
সরকারি চাকরিতে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সমঝোতা করার প্রস্তাব দিলেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম।
২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। রোগী শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ৪ দশমিক ৩১ শতাংশে। যা গতদিনের তুলনায় কম।
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত