সেকশন

শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
 

বিধ্বস্ত হেলকপ্টারটি খুঁজে পায় ইরানি ড্রোনই

আপডেট : ২৩ মে ২০২৪, ১১:৩১ পিএম

বিদায় ইব্রাহিম রাইসি। হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে, নিজের জন্মভূমি উত্তর-পূর্ব ইরানের পবিত্র শহর মাশহাদে জানাজা শেষে দাফন করা হয়েছে তাকে। এই শহরেই রয়েছে ইমাম রেজার মাজার।

মর্মান্তিক সেই হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রেসিডেন্ট রাইসির সাথে নিহত হয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ানসহ উচ্চপদস্থ আরও কয়েকজন কর্মকর্তা। ১৮ ঘণ্টার উদ্ধার অভিযানে খুঁজে বের করা হয় বিধ্বস্ত হেলিকপ্টার এবং রাইসিসহ সবার মৃত্যু আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করে তেহরান সরকার।

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদোল্লাহিয়ানসহ ৮ আরোহী নিয়ে বেল ২১২ মডেলের হেলিকপ্টারটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ার পর সেটির অনুসন্ধানে ব্যাপক বেগ পেতে হয়েছিলো ইরানের অনুসন্ধান দলকে। দেশটির রেড ক্রিসেটের সঙ্গে যোগ দেয় বিভিন্ন দল ও বাহিনী।

এমনকি হেলিকপ্টারটি অনুসন্ধানে যুক্তরাষ্ট্রের কাছেও সাহায্য চেয়েছিলো তেহরান। বিরূপ আবহাওয়ার সঙ্গে ভারী বৃষ্টির কারণে দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় উদ্ধারকাজ কঠিন হয়ে পড়ে। শেষ পর্যন্ত কিভাবে বিধ্বস্ত কপ্টারের অবস্থান পাওয়া গেলো, তা নিয়ে ওই সময়ে নানামুখী খবর আসছিলো।

ড্রোন প্রযুক্তিতে উন্নত হবার পরও ইরানি ড্রোন কেন নিয়োজিত করা হয়নি, সে প্রশ্নও উঠেছিলো। শেষ পর্যন্ত জানা গেলো, আসল কাজটি করেছে ইরানি ড্রোনই। রাইসিকে বহনকারী বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারের অবস্থান শনাক্তে নিজেদের তৈরি ড্রোন ব্যবহার করা হয় বলে বুধবার ইরানের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে।

ইরানের সামরিক বাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারটি খুঁজে পেতে তুরস্ক একটি ড্রোন পাঠিয়েছিলো। এতে নাইটভিশনসহ অত্যাধুনিক সরঞ্জাম ছিলো। তারপরেও হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের স্থান সঠিকভাবে শনাক্তে ব্যর্থ হয় ড্রোনটি। পরে ড্রোনটি তুরস্কে ফিরে যায়।

শেষ পর্যন্ত, দুর্ঘটনার পরদিন সোমবার ভোরে ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর ড্রোন ও স্থলভাগে উদ্ধারকারী বাহিনী হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের সঠিক স্থান উদঘাটন করে। সেই ড্রোনটি ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতেই তৈরি করা হয়। তবে দ্রুততম সময়ে আধুনিক ড্রোন পাঠানোয় তুরস্কের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানানো হয়েছে।

গত সোমবার ভোরে পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের দুর্গম পাহাড়ি জঙ্গলের ভেতরে বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারটির খোঁজ পাওয়া যায়। এরপর সব আরোহীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে তেহরান। হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের কারণ অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছেন ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ বাগেরি।

গত রোববার আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় দুই দেশের যৌথভাবে নির্মিত একটি বাঁধ উদ্বোধন করে সেখান থেকে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের রাজধানী তাবরিজে ফিরছিলেন প্রেসিডেন্ট রাইসি। পথে স্থানীয় সময় দুপুরের দিকে হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়।

হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হওয়ার পরপরই ব্যাপক অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। এতে সহায়তা করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, রাশিয়া ও তুরস্ক। ১৮ ঘণ্টার চেষ্টায় হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের স্থানটি খুঁজে পাবার পরই দ্রুত গতিতে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয় তাবরিজে।

এআরএস
টাইমলাইন: দুর্ঘটনার কবলে ইরানি প্রেসিডেন্ট
২৩ মে ২০২৪, ২৩:৩১
বিধ্বস্ত হেলকপ্টারটি খুঁজে পায় ইরানি ড্রোনই
ইরানের প্রয়াত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি পবিত্র শহর মাশহাদে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন। এই শহরের জন্ম ও বেড়ে উঠা রাইসি। হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার চারদিন পর বৃহস্পতিবার তাকে দাফন করা হয়।
ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি দেশটির এমন একজন নেতা যার মৃত্যু মানতেই পারছেন না মুসলিম বিশ্বের কোটি কোটি মুসলিম মানুষ। এই নেতার মৃত্যুতে নানা ঘটনা-রটনা ষড়যন্ত্রতত্ত্ব সামনে আসছে।
গোটা বিশ্বকে হতবাক ও বিষ্মিত করে দেয়া এক ভয়াবহ হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসাইন আমির আব্দুল্লাহিয়ানসহ আট জন। এরই মধ্যে চিরনিদ্রায় শায়িত...
জন্মস্থান মাশহাদে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। কয়েকদিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বৃহস্পতিবার ইরানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এই শহরে ইমাম আলী আল-রেজার...
তালেবান শাসিত আফগানিস্তানের সীমান্ত ঘেঁষা মুসলিম অধ্যুষিত দেশ তাজিকিস্তানেও নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে হিজাব। দেশটির সর্বোচ্চ আইনসভায় এ সংক্রান্ত একটি আইনও পাস হয়েছে।
ফরিদপুরে সাপের কামড়ে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। দংশন করা স্থানে ক্ষতের চিহ্ন দেখে স্থানীয়দের ধারনা, তাকে রাসেলস ভাইপার (চন্দ্রবোড়া) সাপে কামড় দিয়েছে।
সুপারস্টার শাকিব খান অভিনীত ‘তুফান’ এখন তুঙ্গে। ঈদের অন্যান্য সিনেমার মধ্যে ‘তুফান’ মুক্তি পাওয়ার প্রথম দিন থেকেই দর্শকের আগ্রহের শীর্ষে। ইতোমধ্যে ঢাকাসহ দেশজুড়ে ১২০টির বেশি প্রেক্ষাগৃহে চলছে...
পাহাড়ি ঢলে উজান থেকে আসা পানির প্রবল স্রোত ও ভারী বর্ষণের পর বন্যা কবলিত সিলেট অঞ্চলে কিছুটা সুখবর মিলেছে। নতুন করে বৃষ্টি হয়নি, আকাশ থেকে মেঘ সরে দেখা মিলেছে রোদের। 
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত