সেকশন

শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১
 

রণক্ষেত্র জাবালিয়া, বহু ইসরাইলি সেনা হতাহত

আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ০১:১৮ পিএম

ফিলিস্তিনের উত্তর গাজার জাবালিয়া শহর এখন রণক্ষেত্র। উপত্যকার ছোট এই শহরে হামাস যোদ্ধাদের সাথে ইসরাইলি বাহিনীর তুমুল সংঘর্ষ চলছে। এখন পর্যন্ত এক দখলদার সেনারা মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তবে হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা এখনও জানা যায়নি।   

ইসরাইলি কমান্ডাররা বলছেন, গত অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া যুদ্ধের মধ্যে সম্ভবত শুক্রবার সবচেয়ে ভয়াবহ লড়াই হয়েছে। কারণ, ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা এ শরণার্থী শিবিরের সরু গলির আপেক্ষিক সুবিধা পাচ্ছে। তারা রকেট চালিত গ্রেনেড এবং বিস্ফোরক ডিভাইস দিয়ে আক্রমণ করছে। 

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিরক্ষা থিংক ট্যাংক দ্য ইনস্টিটিউট ফর দ্য স্টাডি অফ ওয়ার (আইএসডব্লিউ) এবং ক্রিটিক্যাল থ্রেটস প্রজেক্টের (সিটিপি) বরাতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা। 

এর আগে শুক্রবার ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা জাবালিয়াতে দখলদার বাহিনীর অন্তত ২২টি অবস্থানে হামলা চালিয়েছে। হামাস বলেছে, তাদের আক্রমণের ফলে শত্রুরা জাবালিয়া এলাকায় তাদের অবস্থান একাধিকবার পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়েছে। 

এদিকে এ যুদ্ধে আরও এক দখলদার সেনা নিহত হয়েছে। তেল আবিবের বরাতে এ কথা জানিয়েছে ইসরাইলি গণমাধ্যমগুলো। 

এতে বলা হয়েছে শুক্রবার উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের কাছে প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সাথে প্রচণ্ড বন্দুকযুদ্ধের সময় সার্জেন্ট বেন আভিশে নামে এক সেনা নিহত হয়।  

ইসরাইলি গণমাধ্যমে সার্জেন্ট বেন আভিশের নিহত হওয়ার খবর প্রকাশের আগেই হামাস জানিয়েছিল, তাদের হামলায় জাবালিয়া শহরের পূর্বাঞ্চলে এক ইসরাইলি সেনা নিহত হয়েছে।

নিহত ইসরাইলি সার্জেন্ট বেন আভিশে।

গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় ভয়াবহ লড়াইয়ের কথা উল্লেখ করে হামাসের সামরিক শাখা আল-কাসসাম ব্রিগেড জানিয়েছে, তাদের যোদ্ধারা জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের পূর্বে শত্রু লাইনের পিছনে ঢুকে পড়েছিল এবং এই এলাকায় একটি ট্যাংক এবং একটি সৈন্যবাহী গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালায়। এতে অনেক সেনা হতাহত হয়েছে। 

তেল আবিব স্বীকার করেছে যে, প্রতিরোধকামী যোদ্ধাদের সাথে ভয়াবহ লড়াইয়ে গত দুইদিনে তাদের পাঁচ সেনা নিহত এবং ৪০ জনের বেশি আহত হয়েছে। 

এ নিয়ে গত অক্টোবর থেকে যুদ্ধ শুরুর পর এ পর্যন্ত ৬২৬ জন দখলদার সেনা নিহত এবং ১৭২৩ জন আহত হয়েছে। 

তবে হামাস বলছে, তাদের হামলায় এর চেয়ে অনেক বেশি সেনা নিহত হয়েছে। কিন্তু নেতানিয়াহু সরকার তথ্য গোপন করছে। 

সম্প্রতি লেবাননের ‌ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহ জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত ইসরাইলের দেড় হাজার সেনা নিহত হয়েছে।

বিপুল সংখ্যক সেনা হতাহত হওয়ার ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে নেতানিয়াহু সরকার। তেল আবিবসহ ইসরাইলের অন্যান্য শহরে সরকারের বিরুদ্ধে প্রায় রোজই সভা ও বিক্ষোভ মিছিল হচ্ছে।

ইসরাইলি নাগরিকদের একাংশ বলছেন, নেতানিয়াহু সরকার হামসকে ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে। তার এখনই পদত্যাগ করা উচিত। অন্যথায় অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়তে পারে ইসরাইল।   

আরবিএস
টাইমলাইন: হামাস-ইসরাইল সংঘর্ষ
২৯ মে ২০২৪, ১৬:০৫
ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে ইসরাইলি বর্বর হামলায় আরও ৩৫ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এতে করে উপত্যকাটিতে নিহতের মোট সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ৩৭ হাজার ৪০০।
ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র সংগঠন হামাসকে নির্মূল করার যে লক্ষ্য নিয়ে ইসরাইলি বাহিনী গাজায় গত আট মাস ধরে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে, তা পূরণ করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন ইসরাইলি প্রতিরক্ষা...
গাজা যুদ্ধ নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার পর্ষদের একটি তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজায় যুদ্ধাপরাধ করছে ইসরাইল। জাতিসংঘ সমর্থিত স্বাধীন কমিশনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি...
ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় গণহত্যা ও আগ্রাসন চালাতে গিয়ে ইসরাইলি বাহিনীর ৭০ হাজারের বেশি সেনা যুদ্ধের জন্য অক্ষম হয়ে পড়েছে। গাজা যুদ্ধে এ পর্যন্ত আট হাজারের বেশি আহত ও হাজারের বেশি...
শেরপুরে বিলের পানি দেখতে গিয়ে নৌকাডুবে দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। তাদের একজন মেডিক্যাল এবং অন্যজন অনার্স পড়ুয়া। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তিন জন। তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
দেশে নতুন করে উৎপাত শুরু করা মারাত্মক বিষধর সাপ রাসেলস ভাইপারের কামড় খেয়ে হাসাপাতালে ভর্তি হয়েছেন এক কৃষক। স্থানীয়রা সাপটিকে পিটিয়ে মেরে রোগীর সঙ্গে সাপও হাসপাতালে নিয়ে যায়। ডাক্তার সেটিকে বিষাক্ত...
কানাডার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় দিয়ে নিজেদের কোপা আমেরিকা মিশন শুরু করে আর্জেন্টিনা।
ফিলিস্তিন রাষ্ট্রকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়েছে আর্মেনিয়া। শুক্রবার আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। ইসরাইলের বিরোধিতা সত্ত্বেও ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিলো পূর্ব ইউরোপের...
লোডিং...
Nagad Ads
সর্বশেষপঠিত

এলাকার খবর


© ২০২৪ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত